০৭:১৩ অপরাহ্ন, শনিবার, ০২ মার্চ ২০২৪, ১৯ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

১ জুলাই থে‌কে যুক্তরা‌জ্যে চালু হ‌লো বিদেশি শিক্ষার্থীদের জন্য পোস্ট-স্টাডি ওয়ার্ক ভিসা।

  • Reporter Name
  • Update Time : ০১:৪৪:৪৭ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ৬ জুলাই ২০২১
  • 20

বিদেশি শিক্ষার্থীদের জন্য একটি নতুন পোস্ট-স্টাডি ওয়ার্ক ভিসা চালু করেছে যুক্তরাজ্যের হোম অফিস। গত ১ জুলাই চালু হওয়া এই ভিসার মাধ্যমে সেদেশের বিদেশি গ্র্যাজুয়েটরা চাকরির অভিজ্ঞতা অর্জনের জন্য থাকার আবেদন করতে পারবেন। এই রুটের শিক্ষার্থীরা সর্বোচ্চ দুই বছরের জন্য পড়ালেখার পাশাপাশি চাকরি করতে অথবা চাকরি খুঁজতে পারবেন। ডক্টরালদের জন্য এই সময়সীমা তিন বছর।

ব্রিটিশ সরকারের ওয়েবসাইটে বলা হয়, এই ভিসার জন্য বিদেশি শিক্ষার্থীদের অবশ্যই ইমিগ্রেশন শর্তাবলি পূরণ ও যোগ্যতা প্রমাণের সাপেক্ষে আবেদন করতে হবে। এই রুটের জন্য স্পন্সর লাগবে না, অর্থাৎ আবেদনকারীর চাকরি না থকলেও চলবে।

এতে যতো জন ইচ্ছা আবেদন করতে পারবেন। তাছাড়া, সর্বনিম্ন বেতনের কোনো বিধি নেই। এই রুটে স্বাধীন মতো চাকরি করা যাবে। চাকরি পালটানোও যাবে। বিদেশি শির্ক্ষার্থীদের নিয়ে ব্রিটিশ সরকারের পরিকল্পনা অনুযায়ী ২০৩০ সালের মধ্যে উচ্চতর শিক্ষায় বিদেশি অংশগ্রহণকারীর সংখ্যা ৬ লাখে পৌঁছতে সহায়তা করবে এই রুট।

হোম সেক্রেটারি প্রীতি প্যাটেল একটি প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে বলেন, প্রতি বছর আমাদের শীর্ষ স্থানীয় বিশ্ববিদ্যালয়গুলো হাজার হাজার বিদেশি শিক্ষার্থীদের স্বাগত জানায়। বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তের মেধাবী তরুণদের পথনির্দেশিকা হয়ে আছে ইউকে। এই নতুন রুটের মাধ্যমে মেধাবীরা যুক্তরাজ্যকে সমৃদ্ধশালী করার সুযোগ পাবে। তাছাড়া, ইউকেতে কেরিয়ার শুরু করার স্বাধীনতা পাবে।

দ্য ইকোনোমিক টাইমসকে দেওয়া বক্তব্যে প্রীতি প্যাটেল জানান, গত বছর প্রায় ৫৬ হাজার ভারতীয় নাগরিক যুক্তরাজ্যে স্টুডেন্ট ভিসা পেয়েছে।

যুক্তরাজ্যের ইমিগ্রেশন মিনিস্টার কেভিন ফস্টার জানান, বিদেশি শিক্ষার্থীদের জন্য কোভিডের ছাড় ২০২২ সালের ৬ এপ্রিল পর্যন্ত বাড়ানো হবে। অর্থাৎ, স্বাস্থ্য বা ভিসা প্রটোকলের কারণে বিশ্ববিদ্যালয় থেকে দূরে অবস্থান করেও নতুন আগত বিদেশি শিক্ষার্থীরা পড়ালেখা চালিয়ে যেতে পারবে।

গ্রাজুয়েট রুটের শিক্ষার্থীদের জন্য ব্রিটিশ সরকার নির্দেশিত তথ্য সহায়তা পাবেন এই লিংকে।

Tag :
About Author Information

জনপ্রিয় সংবাদ

একুশে ফেব্রুয়ারির প্রথম প্রহরে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা

১ জুলাই থে‌কে যুক্তরা‌জ্যে চালু হ‌লো বিদেশি শিক্ষার্থীদের জন্য পোস্ট-স্টাডি ওয়ার্ক ভিসা।

Update Time : ০১:৪৪:৪৭ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ৬ জুলাই ২০২১

বিদেশি শিক্ষার্থীদের জন্য একটি নতুন পোস্ট-স্টাডি ওয়ার্ক ভিসা চালু করেছে যুক্তরাজ্যের হোম অফিস। গত ১ জুলাই চালু হওয়া এই ভিসার মাধ্যমে সেদেশের বিদেশি গ্র্যাজুয়েটরা চাকরির অভিজ্ঞতা অর্জনের জন্য থাকার আবেদন করতে পারবেন। এই রুটের শিক্ষার্থীরা সর্বোচ্চ দুই বছরের জন্য পড়ালেখার পাশাপাশি চাকরি করতে অথবা চাকরি খুঁজতে পারবেন। ডক্টরালদের জন্য এই সময়সীমা তিন বছর।

ব্রিটিশ সরকারের ওয়েবসাইটে বলা হয়, এই ভিসার জন্য বিদেশি শিক্ষার্থীদের অবশ্যই ইমিগ্রেশন শর্তাবলি পূরণ ও যোগ্যতা প্রমাণের সাপেক্ষে আবেদন করতে হবে। এই রুটের জন্য স্পন্সর লাগবে না, অর্থাৎ আবেদনকারীর চাকরি না থকলেও চলবে।

এতে যতো জন ইচ্ছা আবেদন করতে পারবেন। তাছাড়া, সর্বনিম্ন বেতনের কোনো বিধি নেই। এই রুটে স্বাধীন মতো চাকরি করা যাবে। চাকরি পালটানোও যাবে। বিদেশি শির্ক্ষার্থীদের নিয়ে ব্রিটিশ সরকারের পরিকল্পনা অনুযায়ী ২০৩০ সালের মধ্যে উচ্চতর শিক্ষায় বিদেশি অংশগ্রহণকারীর সংখ্যা ৬ লাখে পৌঁছতে সহায়তা করবে এই রুট।

হোম সেক্রেটারি প্রীতি প্যাটেল একটি প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে বলেন, প্রতি বছর আমাদের শীর্ষ স্থানীয় বিশ্ববিদ্যালয়গুলো হাজার হাজার বিদেশি শিক্ষার্থীদের স্বাগত জানায়। বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তের মেধাবী তরুণদের পথনির্দেশিকা হয়ে আছে ইউকে। এই নতুন রুটের মাধ্যমে মেধাবীরা যুক্তরাজ্যকে সমৃদ্ধশালী করার সুযোগ পাবে। তাছাড়া, ইউকেতে কেরিয়ার শুরু করার স্বাধীনতা পাবে।

দ্য ইকোনোমিক টাইমসকে দেওয়া বক্তব্যে প্রীতি প্যাটেল জানান, গত বছর প্রায় ৫৬ হাজার ভারতীয় নাগরিক যুক্তরাজ্যে স্টুডেন্ট ভিসা পেয়েছে।

যুক্তরাজ্যের ইমিগ্রেশন মিনিস্টার কেভিন ফস্টার জানান, বিদেশি শিক্ষার্থীদের জন্য কোভিডের ছাড় ২০২২ সালের ৬ এপ্রিল পর্যন্ত বাড়ানো হবে। অর্থাৎ, স্বাস্থ্য বা ভিসা প্রটোকলের কারণে বিশ্ববিদ্যালয় থেকে দূরে অবস্থান করেও নতুন আগত বিদেশি শিক্ষার্থীরা পড়ালেখা চালিয়ে যেতে পারবে।

গ্রাজুয়েট রুটের শিক্ষার্থীদের জন্য ব্রিটিশ সরকার নির্দেশিত তথ্য সহায়তা পাবেন এই লিংকে।