স্নায়ুযুদ্ধে জয়লাভের পর যুক্তরাষ্ট্র পৃথিবীতে নিজেদের ঈশ্বরের প্রতিনিধি হিসাবে ঘোষণা করেছিল।

নিজস্ব প্রতিবেদকনিজস্ব প্রতিবেদক
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  09:21 PM, 18 June 2022
প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন

একমুখী বিশ্ব বা ইউনিপোলার ওয়ার্ল্ড’ যুগের সমাপ্তি ঘোষণা করেছেন রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন। শুক্রবার সেন্ট পিটার্সবার্গ ইন্টারন্যাশনাল ইকোনমিক ফোরামে পশ্চিমা দেশগুলোর নিন্দা করে দেয়া বক্তৃতায় এ ঘোষণা দেন তিনি।

মার্কিন গণমাধ্যম সিএনএন এক প্রতিবেদনে এ খবর দিয়েছে। পুতিন তার বক্তৃতায় বলেন, স্নায়ুযুদ্ধে জয়লাভের পর যুক্তরাষ্ট্র পৃথিবীতে নিজেদের ঈশ্বরের প্রতিনিধি হিসাবে ঘোষণা করেছিল। নিজেদের স্বার্থ সিদ্ধি করা ছাড়া তাদের কোনো দায়িত্ব ছিল না। তারা সেই স্বার্থগুলোকে পবিত্র বলে ঘোষণা করেছে। তাদের এই কর্তৃত্ববাদ হলো একটি একমুখী যানবাহন যা বিশ্বকে অস্থিতিশীল করে তুলেছে।’

প্রতিবেদন অনুযায়ী পুতিন আরও বলেন, তারা এখনও তাদের অতীত বিভ্রমের অধীনে বাস করছে… তারা মনে করে যে… তারা সবকিছুই জয় করে ফেলেছে এবং সব রাষ্ট্রই যেন তাদের উপনিবেশ, তাদের বাড়ির উঠোন। অথচ সেখানে বসবাসকারী লোকেরা সব দ্বিতীয় শ্রেণির নাগরিক।’

পুতিনের এই বক্তব্য মূলত পুরো বৈশ্বিক ব্যবস্থায় একচেটিয়া মার্কিন প্রভাব বিলুপ্তির ঘোষণা। রুশ প্রেসিডেন্টের এই ঘোষণার মাধ্যমে যুক্তরাষ্ট্রমুখী বিশ্বব্যবস্থার পরিসমাপ্তির সূচনা হলো বলেই মনে করছেন বিশ্লেষকদের একাংশ।

এদিকে পুতিনের এই বহুল আলোচিত বক্তৃতা সাইবার হামলার শিকার হয় বলেও উল্লেখ করা হয়েছে প্রতিবেদনে। যার দরুন ৯০ মিনিটের বেশি সময় পর পুতিনের বক্তৃতা শুরু হয়।

সে সময় ক্রেমলিনের মুখপাত্র দিমিত্রি পেসকভ এক কনফারেন্স কলে সাংবাদিকদের জানান, কনফারেন্সের সিস্টেমে ডিনায়াল অব সার্ভিস (ডিডিওস) আক্রমণের কারণে বক্তৃতা বিলম্বে শুরু হবে।

যদিও এই সাইবার হামলার পেছনে কারা জড়িত তা তাৎক্ষণিকভাবে জানা যায়নি। তবে ইউক্রেনীয় আইটি আর্মি নামে একটি হ্যাকার গ্রুপ চলতি সপ্তাহের শুরুতে নিজেদের টেলিগ্রাম চ্যানেলে ‘সেন্ট পিটার্সবার্গ ফোরামকে’ টার্গেট বানানোর ঘোষণা দিয়েছিল।

উল্লেখ থাকে যে, গত ৪ মাস ধরে প্রকাশ্যে খুব বেশি ভাষণ দেন না পুতিন। এই সম্মেলনে তাই পুতিন কী বলে তার দিকে তাকিয়ে ছিল গোটা বিশ্ব। ভাষণ শুরুর পর সময় নষ্ট না করে সরাসরি তিনি যুক্তরাষ্ট্র ও তার পশ্চিমা মিত্র দেশগুলোকে একের পর এক আক্রমণ করতে থাকেন।