সৈন্যসংখ্যায় ঘাটতি স্বেচ্ছাসেবকদের নিয়ে ব্যাটালিয়ন গঠন করছে রাশিয়া।

নিজস্ব প্রতিবেদকনিজস্ব প্রতিবেদক
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  11:28 PM, 30 July 2022

সৈন্যসংখ্যায় ঘাটতি দেখা দেওয়ায় ইউক্রেনের যুদ্ধে মোতায়েন করার জন্য এবার স্বেচ্ছাসেবকদের নিয়ে ব্যাটালিয়ন গঠন করছে রাশিয়া। ফেব্রুয়ারীতে রাষ্ট্রপতি ভ্লাদিমির পুতিন কর্তৃক ঘোষিত তথাকথিত “বিশেষ সামরিক অভিযানে” যোগদান করানো হচ্ছে তাদের। দেশপ্রেমের দোহাই দিয়ে আর্কটিক সার্কেলের মুরমানস্ক থেকে ইউরালের পার্ম এবং সুদূর প্রাচ্যের প্রিমর্স্কি ক্রাই পর্যন্ত, বিস্তৃত এলাকা থেকে স্বেচ্ছাসেবকদের নিয়োগ করা হচ্ছে। এমনকি নিয়োগের ক্ষেত্রে সামরিক অভিজ্ঞতারও প্রয়োজন নেই বলে জানিয়ে দিয়েছে তারা। বিশ্লেষকরা বলছেন যে, ৩০,০০০-এরও বেশি স্বেচ্ছাসেবককে পাঁচ মাসের যুদ্ধের ফলে ক্ষয়প্রাপ্ত রাশিয়ান সৈন্যদের পরিপূরক হিসাবে একত্রিত করা হতে পারে। এদের পূর্ব ডনবাস অঞ্চলে মোতায়েন করার জন্য তৈরী করা হচ্ছে। গত সপ্তাহে, যুক্তরাজ্যের গোপন গোয়েন্দা সংস্থা MI6-এর প্রধান রিচার্ড মুর সিএনএন-এর জিম সিউটোকে বলেছিলেন, “আগামী কয়েক সপ্তাহে রাশিয়ানদের পক্ষে ম্যান পাওয়ার জোগাড় করা কঠিন হয়ে দাঁড়াবে।” যদিও পুতিন এই ধরণের স্বেচ্ছাসেবক নিয়োগের ঘটনাকে অস্বীকার করেছেন। কিন্তু বিশেষজ্ঞরা বলছেন, এই ব্যাটালিয়নগুলি কোনো কঠোর পদক্ষেপ ছাড়াই রাশিয়ার সামরিক জনশক্তি বাড়ানোর এক উপায়। তারা নগদ অর্থের প্রলোভন দেখিয়ে দরিদ্র এবং বিচ্ছিন্ন অঞ্চলগুলি থেকে দ্রুত লোক জোগাড় করছে। এই ব্যাটালিয়নগুলি কী প্রভাব ফেলতে পারে তা একটি বড় প্রশ্ন।চেচেন স্বেচ্ছাসেবক ইউনিট ডনবাস অভিযানে বিশেষ করে মারিউপোলে একটি বড় ভূমিকা পালন করেছে। তবে তাদের তুলনামূলকভাবে সুসজ্জিত এবং ব্যাপক সামরিক অভিজ্ঞতা রয়েছে। বাকি ব্যাটালিয়নগুলোর সেই অভিজ্ঞতা নেই। ইন্সটিটিউট ফর দ্য স্টাডি অফ ওয়ার ইন ওয়াশিংটনের রাশিয়ার গবেষক কাতেরিনা স্টেপানেঙ্কো বলেছেন: “কিছু ব্যাটালিয়ন একচেটিয়াভাবে যুদ্ধ সমর্থন এবং যুদ্ধ সহায়তা কার্যক্রমে অংশ নেবে। অন্যরা পূর্ব-বিদ্যমান সামরিক ইউনিটগুলিকে শক্তিশালী করবে। ”

দেশপ্রেম — এবং নগদ

স্টেপানেঙ্কো বলেছেন যে পুরো প্রক্রিয়াটি মস্কো থেকে চালিত হচ্ছে। “ক্রেমলিন স্বেচ্ছাসেবক ব্যাটালিয়ন নিয়োগের জন্য ৮৫টি রাশিয়ান ফেডারেল সরকারকে নির্দেশ দিয়েছে।” অঞ্চলগুলি নিয়োগের অর্থায়নে সহায়তা করবে বলে আশা করা হচ্ছে,এক্ষেত্রে  “আঞ্চলিক বাজেটের উপর একটি ভারী চাপ সৃষ্টি হতে পারে।” উদাহরণস্বরূপ, সাইবেরিয়ার ক্রাসনোয়ারস্ককে প্রকল্পের জন্য প্রায় ২ মিলিয়ন ডলার বরাদ্দ করতে হয়েছিল। যোগদানের জন্য প্রয়োজনীয় যোগ্যতা স্থানভেদে পরিবর্তিত হয়। তাতারস্তানের কাজানে একজন অনলাইন ফ্লাইয়ার বলেছেন: “আমরা ৪৯ বছরের কম বয়সী পুরুষদের আমন্ত্রণ জানাই যারা পূর্বে সামরিক বাহিনীতে কাজ করেছেন। ”নিয়োগের পোস্টারে  ইউক্রেনের লড়াইয়ে যোগদানের জন্য প্রকৃত পুরুষদের উচ্চ মজুরি, সেইসাথে প্রশিক্ষণ এবং বীমার প্রতিশ্রুতি দেবার কথা বলা আছে। সোশ্যাল মিডিয়া পোস্ট অনুসারে কিছু স্বেচ্ছাসেবক  ইতিমধ্যেই নিঝনি নভগোরোডের কাছে মুলিনো ট্রেনিং গ্রাউন্ডে প্রশিক্ষণ নিচ্ছে। স্বেচ্ছাসেবকদের চুক্তি চার মাস থেকে এক বছর পর্যন্ত হতে পারে । তাদের  রাশিয়ান অঞ্চলে গড়ের তুলনায় অনেক বেশি মজুরির প্রতিশ্রুতি দেয়া হয়েছে। উদাহরণস্বরূপ, কিরভের পার্ম এবং পশ্চিম রাশিয়ান অঞ্চলে গঠিত ব্যাটালিয়নগুলিকে  মাসিক ৩০০,০০০ রুবেল দেবার কথা বলা হয়েছে। বাশকোর্তোস্তানের সামাজিক মিডিয়া চ্যানেলগুলিতে অনবরত প্রচার চালানো হচ্ছে : “গ্রীষ্মে আপনি সহজেই প্রায় এক মিলিয়ন রুবেল উপার্জন করতে পারেন!” অনেকেই লোভনীয় মজুরির  দ্বারা অনুপ্রাণিত হয়ে, কেউ কেউ আবার দেশপ্রেমের দ্বারা অনুপ্রাণিত হয়ে ব্যাটালিয়নে নাম লেখাচ্ছেন। যদি সমস্ত রাশিয়ান প্রাদেশিক অঞ্চলগুলি একটি ব্যাটালিয়ন তৈরি করে তবে খরচ যথেষ্ট হবে। অনুমান ৮০০জনের ইউনিটের জন্য প্রতি মাসে ১.২মিলিয়ন ডলার খরচ হবে।

আর্কটিক থেকে মধ্য এশিয়া

আক্রমণ শুরু হওয়ার পরপরই চেচেন স্বেচ্ছাসেবকরাই প্রথম ইউক্রেনে প্রবেশ করে। এপ্রিলের শেষে, কাদিরভ তার টেলিগ্রাম চ্যানেলে বলেছিলেন যে “আমাদের বিশাল দেশের বিভিন্ন কোণ থেকে শত শত সাহসী সৈন্য রাশিয়ান মুক্তিবাহিনীর অংশ হওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। গুডারমেসের রাশিয়ান ইউনিভার্সিটি অফ স্পেশাল ফোর্স থেকে স্নাতক হয়ে  প্রতি সপ্তাহে ইউক্রেনের উদ্দেশ্যে রওনা দিচ্ছে প্রায় ২০০ যোদ্ধা। প্রায় ৮,০০০ চেচেন ইউক্রেনে যুদ্ধ করতে গেছে। রাশিয়ার পূর্বপ্রান্তে বুরিয়াতিয়ার স্বেচ্ছাসেবকরাও জড়িত ছিল এই যুদ্ধে। অতি সম্প্রতি, অন্যান্য রাশিয়ান অঞ্চলগুলিও এগিয়ে এসেছে। যার মধ্যে  বাশকোর্তোস্তান প্রজাতন্ত্র ;উল্লেখযোগ্য। বাশকোর্তোস্তানের গভর্নর, রেডি হাবিরভ, গত সপ্তাহে টেলিগ্রামে পোস্ট করেছেন: “আজ আমরা ডনবাসে দ্বিতীয় বাশকির ব্যাটালিয়নকে দেখতে পাচ্ছি। এইভাবে, ৮০০ জনেরও বেশি স্বেচ্ছাসেবক, বাশকোর্তোস্তানের সমস্ত পুত্র, আমাদের দেশ এবং ভ্রাতৃপ্রতিম ডনবাসকে রক্ষা করতে যাবে।”অন্যান্য অঞ্চল যেগুলি স্বেচ্ছাসেবক ব্যাটালিয়ন গঠন করা শুরু করেছে তার মধ্যে রয়েছে ইউরালের চেলিয়াবিনস্ক এবং দূরপ্রাচ্যের প্রিমর্স্কি। গত সপ্তাহে প্রায় ৩০০ চেলিয়াবিনস্ক স্বেচ্ছাসেবকের ছবি পোস্ট করা হয়েছিল।কস্যাক যোদ্ধাদের বেশ কয়েকটি ইউনিটও গঠন করা হচ্ছে –এরা ২০১৪ সালে পূর্ব ইউক্রেনে বিশিষ্টভাবে জড়িত ছিল। ওরেনবার্গ অঞ্চল ইতিমধ্যে তিনটি কস্যাক ব্যাটালিয়নকে যুদ্ধে পাঠিয়েছে। নিয়োগের গতি ক্রমেই বাড়ছে — গত কয়েকদিনের মধ্যে আর্কটিক সার্কেলের মুরমানস্ক অঞ্চল এবং পশ্চিম সাইবেরিয়ার টিউমেন স্বেচ্ছাসেবক ইউনিট গঠনের ঘোষণা করেছে।

রাইফেলের ভিড়

এই ব্যাটালিয়নগুলি – বেশিরভাগই একটি নিয়মিত ব্যাটালিয়নের চেয়ে ছোট- কীভাবে রাশিয়ান অপারেশনে একীভূত হবে তা এখনও পরিষ্কার নয়। তাতার এবং বাশকির ইউনিটগুলিকে রাইফেল ব্যাটালিয়নে পরিণত করা হবে। আঞ্চলিক কর্তৃপক্ষের মতে, প্রাইমর্স্কি ক্রাই-এর স্বেচ্ছাসেবক ব্যাটালিয়ন শুধুমাত্র স্থানীয় বাসিন্দাদের নিয়ে গঠিত এবং ১৫৫ তম গার্ড মেরিন ব্রিগেডের সমর্থনে যাবে।ইউক্রেনে রাশিয়ান জনবলের ঘাটতি দেখা দিয়েছে। ইউক্রেনের সেন্টার ফর কাউন্টারিং ডিসইনফরমেশন বলেছে যে তারা আঞ্চলিক কর্মসংস্থান কেন্দ্রে ২০,০০০ এরও বেশি রাশিয়ান চুক্তিবদ্ধ চাকরিজীবীদের জন্য শূন্যপদের বিজ্ঞাপন খুঁজে পেয়েছে।স্টেপানেঙ্কো বলেছেন, “এই দুর্বল-প্রশিক্ষিত রিক্রুটদের সম্ভবত কামানের তোপ হিসাবে ব্যবহার করা হবে। যুদ্ধক্ষেত্র এবং সামরিক দক্ষতা সম্পর্কে জ্ঞানহীন এইদলগুলি কীভাবে সংঘাতকে পরিচালনা করবে তা কল্পনা করা কঠিন। তা সত্ত্বেও, স্টেপানেঙ্কো বলেন, ”রাশিয়ানরা তাদের ক্ষতি পূরণের জন্য ক্রমাগত জনশক্তির প্রবাহ বাড়িয়ে যাচ্ছে।” ইউক্রেনের সামরিক বাহিনী ইউনিট গঠনের উপর নজর রাখছে। প্রধান গোয়েন্দা অধিদপ্তরের মুখপাত্র ভাদিম স্কিবিটস্কি বলেছেন, রাশিয়া জুলাইয়ের শেষের দিকে ১৬ টি নতুন ব্যাটালিয়ন গঠনের পরিকল্পনা করছে।  অনুমান অনুযায়ী, ক্রিমিয়া সহ প্রতিটি অঞ্চলে প্রায় ৪,০০০ জন লোক থাকবে। স্টেপানেঙ্কো বিশ্বাস করেন যে চূড়ান্ত লক্ষ্য হল লোক জড়ো  করে একত্রিত করা। স্টেপানেঙ্কোর মতে, “স্বেচ্ছাসেবক ব্যাটালিয়ন বা গোপন সংঘবদ্ধকরণের জন্য নিয়োগ শুধুমাত্র সামান্য শতাংশ সৈনিক এবং তাদের পরিবারকে প্রভাবিত করে। এই ধরনের নিয়োগ  পুতিনকে বেশিরভাগ রাশিয়ান পুরুষ জনসংখ্যা এবং তাদের পরিবারকে ক্ষতিগ্রস্থ  না করে আক্রমণের গতিপ্রকৃতি নিয়ন্ত্রণ করার দিকে ধাবিত করবে । ”

সূত্র : সিএনএন