সাঈদ খোকনের বিরুদ্ধে মানহানির দুই মামলা। তাপসের মান সম্মানের বাজারমূল্য কত?- প্রশ্ন সাঈদ খোকনের

জয়‌বি‌ডিজয়‌বি‌ডি
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  07:00 PM, 11 January 2021

ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের (ডিএসসিসি) মেয়র ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নূর তাপস সম্পর্কে মানহানিকর বক্তব্য দেওয়ার অভিযোগে সাবেক মেয়র সাঈদ খোকনের দু’টি মানহানির মামলা করা হয়েছে।
সোমবার (১১ জানুয়ারি) ঢাকার মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট রাজেশ চৌধুরীর আদালতে এই দু’টি মামলা করা হয়। একটি মামলার বাদীর নাম কাজী আনিসুর রহমান। অপর মামলাটির বাদী অ্যাডভোকেট সারওয়ার আলম। আদালতের বেঞ্চ সহকারী রিপন মিয়া এসব তথ্য এসব জানিয়েছেন।
সোমবার (১১ জানুয়ারি) তার বিরুদ্ধে হওয়া মানহানির মামলার প্রতিক্রিয়ায় সাবেক মেয়র ও কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগ নেতা মোহাম্মদ সাঈদ খোকন এসব কথা বলেন।

এর আগে সাঈদ খোকনের বিরুদ্ধে মানহানির মামলা করা হবে বলে জানান ডিএসসিসির বর্তমান মেয়র শেখ ফজলে নূর তাপস।

তাপসের বক্তব্য প্রসঙ্গে সাঈদ খোকন বলেন, তাপসের মান সম্মানের বাজারমূল্য কত? মামলার পূর্ণাঙ্গ বিবরণী পাওয়ার পর সেটা আমি জানতে পারবো। এ মামলার আইনি মোকাবিলার পাশাপাশি রাজপথে দেনা-পাওনার হিসেব হবে, ইনশাআল্লাহ।
এর আগে আজ সকালে রাজধানী কমলাপুর, টিটিপাড়া, সায়েদাবাদ, গোপীবাগসহ বিভিন্ন এলাকার বক্স কালভার্ট এর ময়লা ও বর্জ্য অপসারণ কাজ পরিদর্শন সাবেক মেয়র সাঈদ খোকনের বিরুদ্ধে মানহানির মামলা করা হবে বলে জানিয়েছিলেন বর্তমান মেয়র তাপস। এরপরই সাঈদ খোকনের বিরুদ্ধে এই মামলা দায়েরের খবর এলো।

সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে মেয়র তাপস বলেন, ‘অবশ্যই তিনি (সাঈদ খোকন) মানহানিকর বক্তব্য দিয়েছেন। আমি তাঁর বক্তব্য শুনে অবাক হয়েছি। তিনি নিজে চুনোপুঁটি দুর্নীতিবাজ হিসেবে স্বীকার করেছেন। আর আমার বিরুদ্ধে অভিযোগ করেছেন। আমার বিরুদ্ধে অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে অবশ্যই এটা মানহানিকর হয়েছে। আমি এ ব্যাপারে ব্যবস্থা অবশ্যই নিতে পারি।’

এর আগে, শনিবার (৯ জানুয়ারি) রাজধানীতে এক মানববন্ধনে শেখ ফজলে নূর তাপস মেয়র পদে থাকার যোগ্যতা হারিয়েছেন বলে দাবি করেন সাবেক মেয়র মোহাম্মদ সাঈদ খোকন। ব্যারিস্টার শেখ তাপস ডিএসসিসির শত শত কোটি টাকা নিজ মালিকানাধীন মধুমতি ব্যাংকে হস্তান্তর করেছেন বলে অভিযোগ করেছেন সাঈদ খোকন।

প্রসঙ্গত, পুরান ঢাকার কয়েকটি এলাকার উচ্ছেদ অভিযানকে কেন্দ্র করে বেশ কিছুদিন থেকে ডিএসসিসির বর্তমান ও সাবেক মেয়রের এই কথা লড়াই চলছে।

আপনার মতামত লিখুন :