সরকার সন্ত্রাসী লেলিয়ে দিয়ে দেশ চালাতে চায়, সাকির উপর হামলা তারই প্রমাণ: মির্জা ফখরুল

নিজস্ব প্রতিবেদকনিজস্ব প্রতিবেদক
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  01:24 AM, 08 June 2022
বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর

সীতাকুণ্ডে বিএম কন্টেইনার ডিপোর ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডে আহতদের চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে দেখতে গেলে গণসংহতি আন্দোলনের প্রধান সমন্বয়ক জুনায়েদ সাকির ওপর ছাত্রলীগের হামলার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। তিনি বলেন, সরকার হিংস্র সন্ত্রাসীদের লেলিয়ে দিয়ে দেশ চালাতে চায়, আজকের ঘটনা তারই প্রমাণ।

বিএনপি মহাসচিব বলেন, এ হামলা নারকীয় এবং ইতিহাসে কলঙ্কিত হয়ে থাকবে। মঙ্গলবার (৭ জুন) রাতে গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে বিএনপি মহাসচিব এ কথা বলেন। মির্জা ফখরুল বলেন, সীতাকুণ্ডে অগ্নিকাণ্ডে আহতদের সহমর্মিতা জানাতে হাসপাতালে দেখতে গেলে জুনায়েদ সাকির ওপর হামলা কেবলমাত্র কাপুরুষদের দ্বারাই সম্ভব। এই হামলা সভ্যতা ও মানবিক মূল্যবোধের চরম বিরোধী। এই হামলা সরকারের সকল ব্যর্থতা থেকে দৃষ্টি ফেরানোর কৌশল।সরকারের পেটোয়া সন্ত্রাসীদের প্রকাশ্যে জনপদের পর জনপদ দাপিয়ে বেড়ানোর পর হাসপাতালেও এদের রক্তাক্ত ছোবল থেকে নিস্তার পাচ্ছে না বিরোধী দল-মতের মানুষ দাবি করে বিএনপি মহাসচিব বলেন, এটি কীসের আলামত ? ভোট, গণতন্ত্র, সুষ্ঠু নির্বাচনসহ বিরোধী শক্তিকে আক্রমণ করে ধ্বংস করার তাদের অপচেষ্টা থেমে নেই। সরকার তাদের সকল শক্তি দিয়ে একের পর এক অশুভ পরিকল্পনা এঁটে যাচ্ছে।

তিনি আরও বলেন, গ্যাসের দাম বৃদ্ধিতে জন অসন্তোষকে চাপা দিতেই সীতাকুণ্ডের কন্টেইনার ডিপোর অগ্নিকাণ্ড ঘটানো হয়েছে কি না সেটি নিয়ে জনমনে নানা প্রশ্ন দেখা দিয়েছে। তাই জুনায়েদ সাকির আহতদের দেখতে যাওয়াকে ক্ষমতাসীন মহল মোটেও বরদাশত করতে পারেনি। হত্যার উদ্দেশ্য নিয়ে জুনায়েদ সাকির ওপর আক্রমণ করে তাকে রক্তাক্ত করা হয়েছে। এখন প্রতিরোধের সময় চলে এসেছে। অবিলম্বে হামলাকারী সন্ত্রাসীদের গ্রেপ্তার ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির জোর দাবি জানান তিনি।