শস্য রফতানি উন্মুক্ত করতে ইস্তাম্বুলে ইউক্রেন ও রাশিয়ার মধ্যে চুক্তি

নিজস্ব প্রতিবেদকনিজস্ব প্রতিবেদক
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  12:01 AM, 23 July 2022

ইউক্রেন ও রাশিয়া শস্য রপ্তানি অবরোধ মুক্ত করতে এবং বিশ্বব্যাপী খাদ্য সংকট এড়াতে শুক্রবার একটি চুক্তি স্বাক্ষর করতে যাচ্ছে। এদিকে ইউরোপের জন্য গুরুত্বপূর্ণ রাশিয়ান গ্যাস পাইপলাইন পুনরায় চালু হয়েছে।
অপর দিকে বৃহস্পতিবার রাশিয়ান আর্টিলারি ইউক্রেনের দ্বিতীয় বৃহত্তম শহর খারকিভে গোলাবর্ষন কে ছে, ইতিমধ্যেই কয়েক সপ্তাহের গোলাবর্ষণে শহরটি ক্ষত-বিক্ষত ।
জাতিসংঘের মহাসচিব আন্তোনিও গুতেরেস’র বৃহস্পতিবার বসফরাস  প্রণালীর অদূরে  ইস্তাম্বুলের বিশাল দোলমাবাহচে  প্রাসাদে শস্য চুক্তি স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে যোগ দিতে তুরস্কে পৌঁছানোর কথা রয়েছে।
প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েপ এরদোগানের মুখপাত্র ইব্রাহিম কালিন টুইট করে বলেছেন , শুক্রবার ইস্তাম্বুলে তুর্কি নেতা, গুতেরেস এবং ইউক্রেনীয় ও রাশিয়ান প্রতিনিধিদের উপস্থিতিতে চুক্তিটি স্বাক্ষরিত হবে।
ফেব্রুয়ারিতে রাশিয়া তার প্রতিবেশী দেশটিতে আক্রমণের পর বিশ্বব্যাপী খাদ্যের মূল্য বৃদ্ধি এবং বিশ্বের কয়েকটি দরিদ্র দেশের মানুষ অনাহারের মুখোমুখি হওয়ার পর প্রথম যুদ্ধরত দুটি পক্ষের মধ্যে এই বড় চুক্তি হতে যাচ্ছে।
লড়াইরত ইউক্রেন এবং রাশিয়া ইউরোপের সবচেয়ে উর্বর অঞ্চল এবং বিশ্বের বৃহত্তম শস্য উৎপাদনকারী দেশ।
২৫ মিলিয়ন টন গম এবং অন্যান্য শস্য ইউক্রেনের বন্দরে রাশিয়ান যুদ্ধজাহাজ এবং ল্যান্ডমাইন দ্বারা অবরুদ্ধ অবস্থায় রয়েছে।
ইউক্রেনের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র ওলেগ নিকোলেঙ্কো এএফপিকে বলেছেন,  কিয়েভের প্রতিনিধিদল শুধুমাত্র সেই সমাধানগুলি গ্রহণ করবে যা এর দক্ষিণাঞ্চলের নিরাপত্তা, কৃষ্ণ সাগরে তার বাহিনীর অবস্থান এবং এর কৃষি পণ্যের নিরাপদ রপ্তানির নিশ্চয়তা দেয়।
মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র এই চুক্তিকে স্বাগত জানিয়েছে  এবং রাশিয়াকে একে সরল বিশ্বাসে বাস্তবায়নের আহ্বান জানিয়েছে।
তাছাড়া রাশিয়া বৃহস্পতিবার ১০ দিনের রক্ষণাবেক্ষণের পর নর্ড স্ট্রিম-১ পাইপলাইনের মাধ্যমে জার্মানিতে গ্যাস সরবরাহ শুরু করেছে। এটি বিশ্ববাজারের  জন্য একটি সুখবর হিসেবে বিবেচিত হচ্ছে।