যুক্তরা‌জ্যের সেরা শিক্ষা বৃ‌ত্তির তা‌লিকা।

joybd24joybd24
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  12:20 AM, 15 July 2021

এ সময়ে বৈশ্বিক মহামারি, অস্থিরতা, এবং অর্থনৈতিক দোলাচলে উচ্চশিক্ষা গ্রহণে বিদেশে পড়তে ইচ্ছুক ছাত্রছাত্রী রয়েছে সংকটের মুখে। সিদ্ধান্তহীনতা, এবং পর্যাপ্ত তথ্যের অভাবে যোগ্য শিক্ষার্থীও হারাচ্ছেন বিশ্বের সেরা বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে বৃত্তি নিয়ে পড়ার সুযোগ। নিচের এই তালিকা অনেকটাই সাহায্য করবে শিক্ষার্থীদের নিজ যোগ্যতা অনুযায়ী বৃত্তির জন্য আবেদন করতে।

স্টাডি ইন্টারন্যাশনালের তথ্য অনুযায়ী, বিশ্বনেতাদের প্রতি চারজনের একজন তাদের উচ্চশিক্ষা সম্পন্ন করেছেন যুক্তরাজ্যের এই বৃত্তিগুলোর সহায়তায়। এ তালিকায় সদ্য নির্বাচিত গাম্বিয়ান প্রেসিডেন্ট আদামা বারো থেকে শুরু করে মায়ানমানের নোবেল লরিয়েট শাসক অং সাং সুচির নামও রয়েছে।

২০২১-২২ সেশনে যে স্বনামধন্য আন্তর্জাতিক বৃত্তিগুলোতে আবেদনের সুযোগ রয়েছে সেগুলো হলো-

কমনওয়েলথ স্কলারশিপ 

কমনওয়েলথ দিচ্ছে বৃত্তি (স্কলারশিপ) সুবিধা। সাধারণত নিম্ন ও মধ্যম আয়ের দেশগুলোর শিক্ষার্থীদের যুক্তরাজ্যের বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে স্কলারশিপে মাস্টার্সে পড়ার সুযোগ করে দেয় কমনওয়েলথ বৃত্তি। মাস্টার্সের জন্য কমনওয়েলথের এই বৃত্তির যাবতীয় অর্থ দেয় ইউকে ডিপার্টমেন্ট ফর ইন্টারন্যাশনাল ডেভেলপমেন্ট (ডিএফআইডি) নামের একটি প্রতিষ্ঠান।

এখন পর্যন্ত বিশ্বের ২৭ হাজার ৮০০ জন কমনওয়েলথ বৃত্তি পেয়েছেন। প্রতিবছর ২০০ জনের বেশি মাস্টার্স এবং পিএএচডি প্রোগ্রামের এ বৃত্তিটি। কমনওয়েলথ বৃত্তির জন্য কোনোও আবেদন ফি নেই। মাস্টার্সের জন্য ১ বছর এবং পিএইচডির জন্য ৩ বছরের কমনওয়েলথ বৃত্তি দেওয়া হয়।

কমনওয়েলথভুক্ত ৫৪ দেশের শিক্ষার্থীরা এ বৃত্তির জন্য আবেদন করতে পারেন।

গেটস ক্যামব্রিজ স্ক্লারশিপ

যুক্তরাজ্যের অন্যতম প্রাচীন বিদ্যাপীঠ ক্যামব্রিজ বিশ্ববিদ্যালয় বিভিন্ন সময়ে বিশ্বব্যাপী নানা বৃত্তি দেয়। তার মধ্যে উল্লেখযোগ্য গেটস ক্যামব্রিজ স্ক্লারশিপ। মাইক্রোসফটের সহ-প্রতিষ্ঠাতা বিল গেটস ও  মেলিন্দা গেটস ফাউন্ডেশন এ বৃত্তির জন্য অর্থায়ন করে থাকে।

ডিপ্লোমা, মাস্টার্স ও পিএইচডির জন্য এ বৃত্তি দেওয়া হয়। এ মাসের শেষদিন পর্যন্ত এ বৃত্তির জন্য আবেদন করতে পারবেন। স্কলারশিপপ্রাপ্ত শিক্ষার্থীরা ১ বছরে সাড়ে ১৭ হাজার পাউন্ড পাবেন। এর সঙ্গে বিমানের যাওয়া-আসার টিকিটও পাবেন। কোর্সভেদে অনেকে ৫০০-২০০০ হাজার পাউন্ড পাবেন।

এতে ভিসা ও স্বাস্থ্যবীমার সুবিধাও রয়েছে। বিবাহিতরা যেমন সুযোগ-সুবিধা পাবেন; তেমনি সন্তান থাকলেও তার ভরণ-পোষণের জন্য ভাতা পাবেন। বছরে ১০ হাজার ১২০ পাউন্ড পাবেন প্রথম সন্তানের জন্য। আর দ্বিতীয় সন্তানের জন্য পাবেন ৪ হাজার ৩২০ পাউন্ড। ফিল্ডওয়ার্কের জন্য পিএইচডির শিক্ষার্থীরা পাবেন আলাদা অ্যালাউন্স। এ ছাড়া মাতৃত্ব ও পিতৃত্বকালীন অর্থের ব্যবস্থা আছে।

রোডস স্ক্লারশিপ

যুক্তরাজ্যের অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ার জন্য একটি আন্তর্জাতিক স্নাতকোত্তর বৃত্তি প্রদান প্রকল্প। বৃত্তিটি ১৯০২ সালে চালু হয়। এটি ইতিহাসের প্রথম বড় মাপের আন্তর্জাতিক বৃত্তি প্রকল্প। ইংরেজ ব্যবসায়ী ও রাজনীতিবিদ সেসিল রোডস এই বৃত্তিদান প্রকল্পটি প্রতিষ্ঠা করেন, যার উদ্দেশ্য ছিল ইংরেজিভাষী দেশগুলির মধ্যে একতায় উৎসাহ প্রদান করা এবং কর্মজীবনের অভিমুখ নির্বিশেষে বৃত্তিপ্রাপ্ত শিক্ষার্থীদের মধ্যে ভবিষ্যতে নাগরিক নেতৃত্ব দানের গুণাবলি ও নৈতিক সাহস প্রতিষ্ঠিত করা।

শুরুতে রোডস বৃত্তিটি কমনওয়েলথ সংস্থাভুক্ত দেশগুলির (সাথে জার্মানি ও মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রও অন্তর্ভুক্ত ছিল) পুরুষ আবেদনপ্রার্থীদের জন্য নির্দিষ্ট করা থাকলেও বর্তমানে এটি বিশ্বের সর্বত্র যেকোন পটভূমির আবেদনকারীর জন্য উন্মুক্ত।

 

এডিনবার্গ বিশ্ববিদ্যালয়: গ্লোবাল রিসার্চ স্ক্লারশিপ

স্বনামধন্য এডিনবার্গ বিশ্ববিদ্যালয় বিশ্বজুড়ে বাছাইকৃত ৩০ জন শিক্ষার্থীকে সুযোগ দেয় যুক্তরাজ্যে বিনামূল্যে পিএইচডি রিসার্চ প্রোগ্রামে যোগদানের। এটি স্কটিশ বিশ্ববিদ্যালয়ের সব কয়টি শাখায় উচ্চশিক্ষার সুযোগ দেয়। বিশ্ববিদ্যালয়ে বৃত্তিটির মাধ্যমে শিক্ষা খরচ প্রয়োজন হয় না তবে যাপিত জীবনের খরচ এ বৃত্তির অন্তর্ভুক্ত নয়।