০৭:২৫ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ২৪ জুন ২০২৪, ১০ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

যুক্তরাষ্ট্রে বাংলাদেশি শিক্ষার্থী নিহতের ঘটনায় ঢাকায় মানববন্ধন

যুক্তরাষ্ট্রে পুলিশের গুলিতে বাংলাদেশি শিক্ষার্থী সৈয়দ ফয়সাল আরিফের মৃত্যুর প্রতিবাদে ঢাকায় পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সামনে মানববন্ধন করেছে সচেতন নাগরিক সমাজ নামে একটি সংগঠন। একইসঙ্গে এ ঘটনার সুষ্ঠু তদন্ত ও বিচার চেয়েছে সংগঠনটি।

সোমবার দুপুরে এ মানববন্ধনের আয়োজন করা হয়। এ সময় উপস্থিত ছিলেন ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের ২৬ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর হাসিবুর রহমান মানিক। তবে মানববন্ধনে নিহত সৈয়দ ফয়সালের কোনো আত্মীয়-স্বজন ছিলেন না।

মানববন্ধন থেকে ‘আমেরিকায় মানবাধিকার আজ কোথায়?’, ‘উই ওয়ান্ট জাস্টিস’, ‘যুক্তরাষ্ট্রে আজ মানবাধিকার ভূলুণ্ঠিত’ সহ নানা প্ল্যাকার্ডে প্রতিবাদ জানায় সংগঠনটি।

মানববন্ধনের কারণ সম্পর্কে ওয়ার্ড কাউন্সিলর হাসিবুর রহমান মানিক বলেন, ‘আমরা সাধারণ জনগণ। যুক্তরাষ্ট্রে আমার এক বাঙালি ভাইকে নির্মমভাবে হত্যা করা হয়েছে। তারা মানবাধিকার লঙ্ঘন করেছে। কথায় কথায় যুক্তরাষ্ট্র মানবাধিকারের কথা বলে। কিন্তু আমাদের বাঙালি যুক্তরাষ্ট্রেই মানবাধিকার লঙ্ঘনের শিকার হচ্ছে। তারা যদি এমন করে তাহলে এটা কেমন মানবাধিকার?’

হাসিবুর রহমান বলেন, ‘এটা আমরা পৃথিবীকে জানাতে চাই। আমাদের দেশে কিছু হলে বিদেশি রাষ্ট্রদূতরা প্রতিবাদ করে। এখন বিভিন্ন দেশের রাষ্ট্রদূতরাও প্রতিবাদ করুক। আমরা এটা করেছি, বিশ্বের প্রতিটি জায়গায় যেন এটা ছড়িয়ে পড়ে।’

যুক্তরাষ্ট্রের জ্যেষ্ঠ প্রতিরক্ষা কর্মকর্তা রিয়ার অ্যাডমিরাল এইলেন লবাখের নেতৃত্বে একটি প্রতিনিধিদল বর্তমানে ঢাকায় অবস্থান করছেন। সোমবার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে পররাষ্ট্র সচিবের সঙ্গে তাদের বৈঠকের কথা রয়েছে।

মার্কিন অ্যাডমিরালের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে আসাকে কেন্দ্র করে এ মানববন্ধন কি না বা আজই কেন এ মানববন্ধন করতে হবে এমন প্রশ্নের জবাবে কাউন্সিলর হাসিবুর রহমান বলেন, ‘যেহেতু আমাদের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় বিশ্বের অন্য দেশগুলোকে দেখে, এজন্য আমরা পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সামনে প্রতিবাদ করেছি।’

Tag :
About Author Information

ভারতে ৩শ’ রুপির গয়না ৬ কোটিতে বিক্রি করে মার্কিন নারীর সঙ্গে প্রতারণা।

যুক্তরাষ্ট্রে বাংলাদেশি শিক্ষার্থী নিহতের ঘটনায় ঢাকায় মানববন্ধন

Update Time : ১০:১১:২৯ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ৯ জানুয়ারী ২০২৩

যুক্তরাষ্ট্রে পুলিশের গুলিতে বাংলাদেশি শিক্ষার্থী সৈয়দ ফয়সাল আরিফের মৃত্যুর প্রতিবাদে ঢাকায় পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সামনে মানববন্ধন করেছে সচেতন নাগরিক সমাজ নামে একটি সংগঠন। একইসঙ্গে এ ঘটনার সুষ্ঠু তদন্ত ও বিচার চেয়েছে সংগঠনটি।

সোমবার দুপুরে এ মানববন্ধনের আয়োজন করা হয়। এ সময় উপস্থিত ছিলেন ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের ২৬ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর হাসিবুর রহমান মানিক। তবে মানববন্ধনে নিহত সৈয়দ ফয়সালের কোনো আত্মীয়-স্বজন ছিলেন না।

মানববন্ধন থেকে ‘আমেরিকায় মানবাধিকার আজ কোথায়?’, ‘উই ওয়ান্ট জাস্টিস’, ‘যুক্তরাষ্ট্রে আজ মানবাধিকার ভূলুণ্ঠিত’ সহ নানা প্ল্যাকার্ডে প্রতিবাদ জানায় সংগঠনটি।

মানববন্ধনের কারণ সম্পর্কে ওয়ার্ড কাউন্সিলর হাসিবুর রহমান মানিক বলেন, ‘আমরা সাধারণ জনগণ। যুক্তরাষ্ট্রে আমার এক বাঙালি ভাইকে নির্মমভাবে হত্যা করা হয়েছে। তারা মানবাধিকার লঙ্ঘন করেছে। কথায় কথায় যুক্তরাষ্ট্র মানবাধিকারের কথা বলে। কিন্তু আমাদের বাঙালি যুক্তরাষ্ট্রেই মানবাধিকার লঙ্ঘনের শিকার হচ্ছে। তারা যদি এমন করে তাহলে এটা কেমন মানবাধিকার?’

হাসিবুর রহমান বলেন, ‘এটা আমরা পৃথিবীকে জানাতে চাই। আমাদের দেশে কিছু হলে বিদেশি রাষ্ট্রদূতরা প্রতিবাদ করে। এখন বিভিন্ন দেশের রাষ্ট্রদূতরাও প্রতিবাদ করুক। আমরা এটা করেছি, বিশ্বের প্রতিটি জায়গায় যেন এটা ছড়িয়ে পড়ে।’

যুক্তরাষ্ট্রের জ্যেষ্ঠ প্রতিরক্ষা কর্মকর্তা রিয়ার অ্যাডমিরাল এইলেন লবাখের নেতৃত্বে একটি প্রতিনিধিদল বর্তমানে ঢাকায় অবস্থান করছেন। সোমবার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে পররাষ্ট্র সচিবের সঙ্গে তাদের বৈঠকের কথা রয়েছে।

মার্কিন অ্যাডমিরালের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে আসাকে কেন্দ্র করে এ মানববন্ধন কি না বা আজই কেন এ মানববন্ধন করতে হবে এমন প্রশ্নের জবাবে কাউন্সিলর হাসিবুর রহমান বলেন, ‘যেহেতু আমাদের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় বিশ্বের অন্য দেশগুলোকে দেখে, এজন্য আমরা পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সামনে প্রতিবাদ করেছি।’