০৫:০৬ অপরাহ্ন, শনিবার, ২০ এপ্রিল ২০২৪, ৭ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ব্রিটেনে অনিবন্ধিত অভিবাসীদের অ্যামনেস্টি দেওয়ার বিষয়ে ডিবেট ১৯ জুলাই।

  • Reporter Name
  • Update Time : ০৭:২৩:১০ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৫ জুলাই ২০২১
  • 19

ব্রিটেনে অবস্থানরত অনিবন্ধিত অভিবাসীদের অ্যামনেস্টি দেওয়ার বিষয়ে অনলাইন পিটিশন নিয়ে পার্লামেন্টে ডিবেটের দিন ধার্য হয়েছে। ওয়েস্টমিনিস্টার হলে আগামী ১৯ জুলাই সন্ধ্যা ৬টা ১৫ মিনিটে (লন্ডন সময়) এই বিতর্ক অনুষ্ঠিত হবে। বিতর্কটি শুরু করবেন সংসদ সদস্য টম হান্ট।

বুধবার (১৪ জুলাই) ব্রিটিশ পার্লামেন্টের ওয়েবসাইটে প্রকাশিত ঘোষণায় এ তথ্য জানানো হয়। বুধবার শেষ হওয়া এই অনলাইন পিটিশনে অনিবন্ধিত অভিবাসীদের অ্যামনেস্টি দেওয়ার পক্ষে এক লাখ তিন হাজার স্বাক্ষর জমা পড়েছে।

উল্লেখ্য, ব্রিটেনে অভিবাসন প্রত্যাশী লাখ লাখ মানুষ অবৈধভাবে অবস্থান করছেন। পর্যাপ্ত আর্থিক ও অন্যান্য সহযোগিতা ছাড়াই নিরবে অমানবিক জীবন কাটাতে হচ্ছে তাদের। অথচ, সরকারের চোখে যেন তারা কোনো অদৃশ্য ‘বস্তু’।

এই পিটিশনের মাধ্যমে ব্রিটিশ সরকারের কাছে দাবি করা হয়েছে, এদেরমধ্যে যাদের কোনো রকম ক্রিমিনাল রেকর্ড নেই, তাদেরকে যেন অবিলম্বে ৫ বছরের অ্যামনেস্টি দেওয়া হয়, যাতে তারা সাধারণ মানুষের মতো জীবনযাপন করতে পারেন এবং যুক্তরাজ্যের অর্থনীতিকে সমৃদ্ধশালী করতে ট্যাক্স দিতে পারেন।

বর্তমানে কোভিড-১৯ প্যানডেমিক এই মানুষগুলোর জন্য আরও বেশি বৈরী পরিবেশ তৈরি করেছে। যেহেতু এই মানুষগুলো এরইমধ্যে যুক্তরাজ্যে অবস্থান করছেন, সুতরাং তাদেরকে সেদেশে বৈধতা ও নাগরিকত্ব দেওয়ার মাধ্যমে মৌলিক মানবাধিকার সুরক্ষিত করাই কার্যকর পদক্ষেপ বলে মনে করছেন ব্রিটিশ নেতাদের একটি অংশ।

Tag :
About Author Information

জনপ্রিয় সংবাদ

একুশে ফেব্রুয়ারির প্রথম প্রহরে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা

ব্রিটেনে অনিবন্ধিত অভিবাসীদের অ্যামনেস্টি দেওয়ার বিষয়ে ডিবেট ১৯ জুলাই।

Update Time : ০৭:২৩:১০ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৫ জুলাই ২০২১

ব্রিটেনে অবস্থানরত অনিবন্ধিত অভিবাসীদের অ্যামনেস্টি দেওয়ার বিষয়ে অনলাইন পিটিশন নিয়ে পার্লামেন্টে ডিবেটের দিন ধার্য হয়েছে। ওয়েস্টমিনিস্টার হলে আগামী ১৯ জুলাই সন্ধ্যা ৬টা ১৫ মিনিটে (লন্ডন সময়) এই বিতর্ক অনুষ্ঠিত হবে। বিতর্কটি শুরু করবেন সংসদ সদস্য টম হান্ট।

বুধবার (১৪ জুলাই) ব্রিটিশ পার্লামেন্টের ওয়েবসাইটে প্রকাশিত ঘোষণায় এ তথ্য জানানো হয়। বুধবার শেষ হওয়া এই অনলাইন পিটিশনে অনিবন্ধিত অভিবাসীদের অ্যামনেস্টি দেওয়ার পক্ষে এক লাখ তিন হাজার স্বাক্ষর জমা পড়েছে।

উল্লেখ্য, ব্রিটেনে অভিবাসন প্রত্যাশী লাখ লাখ মানুষ অবৈধভাবে অবস্থান করছেন। পর্যাপ্ত আর্থিক ও অন্যান্য সহযোগিতা ছাড়াই নিরবে অমানবিক জীবন কাটাতে হচ্ছে তাদের। অথচ, সরকারের চোখে যেন তারা কোনো অদৃশ্য ‘বস্তু’।

এই পিটিশনের মাধ্যমে ব্রিটিশ সরকারের কাছে দাবি করা হয়েছে, এদেরমধ্যে যাদের কোনো রকম ক্রিমিনাল রেকর্ড নেই, তাদেরকে যেন অবিলম্বে ৫ বছরের অ্যামনেস্টি দেওয়া হয়, যাতে তারা সাধারণ মানুষের মতো জীবনযাপন করতে পারেন এবং যুক্তরাজ্যের অর্থনীতিকে সমৃদ্ধশালী করতে ট্যাক্স দিতে পারেন।

বর্তমানে কোভিড-১৯ প্যানডেমিক এই মানুষগুলোর জন্য আরও বেশি বৈরী পরিবেশ তৈরি করেছে। যেহেতু এই মানুষগুলো এরইমধ্যে যুক্তরাজ্যে অবস্থান করছেন, সুতরাং তাদেরকে সেদেশে বৈধতা ও নাগরিকত্ব দেওয়ার মাধ্যমে মৌলিক মানবাধিকার সুরক্ষিত করাই কার্যকর পদক্ষেপ বলে মনে করছেন ব্রিটিশ নেতাদের একটি অংশ।