০৭:১০ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ২৪ জুন ২০২৪, ১০ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

বিয়ের জন্য প্রেমিকের বাড়িতে অবস্থান, স্কুলছাত্রীকে ধরে নিয়ে গেল পুলিশ

  • Reporter Name
  • Update Time : ০৯:৫৪:৫৫ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২৯ জুলাই ২০২২
  • 52

রংপুরের বদরগঞ্জের লোহানি পাড়া ইউনিয়নের মাদাই খামার জেলেপাড়ায় বিয়ের দাবিতে প্রেমিকের বাড়িতে অবস্থান নেয়া নবম শ্রেণির ছাত্রীকে থানায় নিয়ে গেছে পুলিশ।

শুক্রবার (২৯ জুলাই) বিকেল ৪ টায় বদরগঞ্জ থানা পুলিশ তাকে নিয়ে যায়। বিয়ের দাবিতে চারদিন ধরে মেয়েটি অবস্থান করছিল বলে জানায় পুলিশ।

বদরগঞ্জ থানার ওসি হাবিবুর রহমান হাবিব জানান, মেয়েটির বাবা বাদী হয়ে এ ঘটনায় একটি অভিযোগ দায়ের করেন। অভিযোগের প্রেক্ষিতে বিয়ের দাবিতে অবস্থানে বসা ওই শিক্ষার্থীকে শুক্রবার থানায় নিয়ে যাওয়া হয়। এছাড়াও ছেলেপক্ষ এবং মেয়েপক্ষের লোকজনকে থানায় ডাকা হয়েছে। তাদের সাথে কথা বলে ঘটনায় আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে জানান এই পুলিশ কর্মকর্তা।

তরুণী জানান, সাগর বিশ্বাসের সাথে তার সাড়ে তিন বছরের প্রেমের সম্পর্ক। এর মধ্যে স্বামী স্ত্রীর মত মেলামেশা করেছেন তারা। কিন্তু সাগর দিনাজপুরের ফুলবাড়ি থানার বেলঘাটা ইউনিয়নে অন্য একটি মেয়েকে বিয়ে করতে যায় ২৬ জুলাই সকালে। এটা শুনে তাদের বাড়িতে অবস্থান নেয় সে।

স্থানীয় রহমত মিয়া জানান, গত ২৬ জুলাই মেয়েটি সাগর বিশ্বাস নামের যুবকের বাড়িতে বিয়ের দাবিতে অবস্থান করে। কিন্তু এ ঘটনার তিনদিন আগে অন্য এক মেয়ের সাথে সাগরের আশীর্বাদ হয়। যৌতুক বাবদ ১ লাখ ৪০ হাজার এবং স্বর্ণালংকার বাবদ ৫০ হাজার টাকা সাগর বিশ্বাসের পিতাকে বুঝিয়ে দেয় মেয়েপক্ষ। এরই মধ্যে নবম শ্রেণি পড়ুয়া ওই শিক্ষার্থী বিয়ের দাবিতে সাগরের বাড়িতে অবস্থান নেন

মেয়ের পরিবারের দাবি, সাগর বিশ্বাসের সাথে তাদের মেয়েকে বিয়ে দিতে হবে। তা না হলে এই মেয়েকে নিয়ে সমাজে মুখ দেখাতে পারবেন না বলে জানান তারা।

Tag :
About Author Information

ভারতে ৩শ’ রুপির গয়না ৬ কোটিতে বিক্রি করে মার্কিন নারীর সঙ্গে প্রতারণা।

বিয়ের জন্য প্রেমিকের বাড়িতে অবস্থান, স্কুলছাত্রীকে ধরে নিয়ে গেল পুলিশ

Update Time : ০৯:৫৪:৫৫ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২৯ জুলাই ২০২২

রংপুরের বদরগঞ্জের লোহানি পাড়া ইউনিয়নের মাদাই খামার জেলেপাড়ায় বিয়ের দাবিতে প্রেমিকের বাড়িতে অবস্থান নেয়া নবম শ্রেণির ছাত্রীকে থানায় নিয়ে গেছে পুলিশ।

শুক্রবার (২৯ জুলাই) বিকেল ৪ টায় বদরগঞ্জ থানা পুলিশ তাকে নিয়ে যায়। বিয়ের দাবিতে চারদিন ধরে মেয়েটি অবস্থান করছিল বলে জানায় পুলিশ।

বদরগঞ্জ থানার ওসি হাবিবুর রহমান হাবিব জানান, মেয়েটির বাবা বাদী হয়ে এ ঘটনায় একটি অভিযোগ দায়ের করেন। অভিযোগের প্রেক্ষিতে বিয়ের দাবিতে অবস্থানে বসা ওই শিক্ষার্থীকে শুক্রবার থানায় নিয়ে যাওয়া হয়। এছাড়াও ছেলেপক্ষ এবং মেয়েপক্ষের লোকজনকে থানায় ডাকা হয়েছে। তাদের সাথে কথা বলে ঘটনায় আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে জানান এই পুলিশ কর্মকর্তা।

তরুণী জানান, সাগর বিশ্বাসের সাথে তার সাড়ে তিন বছরের প্রেমের সম্পর্ক। এর মধ্যে স্বামী স্ত্রীর মত মেলামেশা করেছেন তারা। কিন্তু সাগর দিনাজপুরের ফুলবাড়ি থানার বেলঘাটা ইউনিয়নে অন্য একটি মেয়েকে বিয়ে করতে যায় ২৬ জুলাই সকালে। এটা শুনে তাদের বাড়িতে অবস্থান নেয় সে।

স্থানীয় রহমত মিয়া জানান, গত ২৬ জুলাই মেয়েটি সাগর বিশ্বাস নামের যুবকের বাড়িতে বিয়ের দাবিতে অবস্থান করে। কিন্তু এ ঘটনার তিনদিন আগে অন্য এক মেয়ের সাথে সাগরের আশীর্বাদ হয়। যৌতুক বাবদ ১ লাখ ৪০ হাজার এবং স্বর্ণালংকার বাবদ ৫০ হাজার টাকা সাগর বিশ্বাসের পিতাকে বুঝিয়ে দেয় মেয়েপক্ষ। এরই মধ্যে নবম শ্রেণি পড়ুয়া ওই শিক্ষার্থী বিয়ের দাবিতে সাগরের বাড়িতে অবস্থান নেন

মেয়ের পরিবারের দাবি, সাগর বিশ্বাসের সাথে তাদের মেয়েকে বিয়ে দিতে হবে। তা না হলে এই মেয়েকে নিয়ে সমাজে মুখ দেখাতে পারবেন না বলে জানান তারা।