পাকিস্তানের সাবেক প্রেসিডেন্ট পারভেজ মোশাররফ এখন জীবন-মৃত্যুর সন্ধিক্ষণে।

নিজস্ব প্রতিবেদকনিজস্ব প্রতিবেদক
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  08:10 PM, 19 June 2022
পাকিস্তানের সাবেক প্রেসিডেন্ট পারভেজ মোশাররফ

পাকিস্তানের সাবেক সামরিক শাসক জেনারেল পারভেজ মোশাররফ এখন জীবন-মৃত্যুর সন্ধিক্ষণে। সংযুক্ত আরব আমিরাতে চিকিৎসাধীন সে অবস্থা থেকেই দেশে ফিরতে ব্যাকুল হয়ে উঠেছেন তিনি। তবে দেশে ফেরার পথেও রয়েছে বাধা। চিকিৎসকরা তার আকাশপথে ভ্রমণ নিষিদ্ধ করেছেন।

পাকিস্তানি গণমাধ্যম জিও টিভির প্রতিবেদন অনুযায়ী, পারভেজ মোশাররফের ঘনিষ্ঠ বন্ধু তারিক আজিজ এ কথা জানিয়েছেন। তিনি পারভেজ মোশাররফের মুখ্য সচিব এবং তার ক্ষমতার আট বছরে জাতীয় নিরাপত্তা পরিষদের সেক্রেটারি জেনারেলের দায়িত্ব পালন করেছেন।

জানা গেছে, আমিরাতে একটি স্টেট অব আর্ট হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে সাবেক এই প্রেসিডেন্টকে। একদল দক্ষ চিকিৎসক তাকে দেখাশোনা করছেন। কিন্তু তাকে তারা দেশে পাঠানোর সাহস পাচ্ছেন না। সাবেক এই জেনারেল কাম প্রেসিডেন্ট কথা বলতে খুব কষ্ট পান।তবু তিনি দেশের পরিস্থিতি সম্পর্কে খোঁজ নেন। প্রতি সময় প্রার্থনা করেন। ওদিকে তার ছেলে বিলাল তার পাশে অবস্থান নিয়েছেন। তারিক আজিজ বলেন, আমিরাতের শাসক সাবেক এই জেনারেলের দেখাশোনা করছেন।

প্রতিবেদনে বলা হয়, পারভেজ মোশাররফকে দেশে ফেরাতে একটি বড় মাপের বোয়িং ৭৭৭ বিমান সরবরাহ দিতে প্রস্তুত সংযুক্ত আরব আমিরাত সরকার। তারা ওই বিমানটিকে একটি এয়ার অ্যাম্বুলেন্স বানিয়ে দিতেও প্রস্তুত। এতে থাকবে সব রকম সুবিধা এবং সরঞ্জাম।পাকিস্তানের দ্য নিউজ’কে তারিক আজিজ বলেছেন, তিনি বিষয়টি নিয়ে পারভেজ মোশাররফের স্ত্রী মিসেস সেহবা মোশাররফের সঙ্গে নিয়মিত যোগাযোগ রাখছেন। দুবাইয়ের হাসপাতালে স্বামীর নিয়মিত দেখাশোনা করছেন মিসেস সেহবা। কিন্তু মোশারফের স্বাস্থ্যের ক্রমাবনতিতে তিনি উদ্বিগ্ন।

লাহোরের এফসি কলেজ থেকেই ঘনিষ্ঠ বন্ধু পারভেজ মোশাররফ ও তারিক আজিজ। তিনি বলেছেন, যারা সাবেক এই প্রেসিডেন্টের সুস্বাস্থ্যের জন্য শুভ কামনা জানিয়েছেন তাদের সবার প্রতি কৃতজ্ঞ পরিবার। তবে পারভেজ মোশাররফ ও তার স্ত্রী দু’জনেই দুবাইয়ে একাকীত্বে ভুগছেন।