দোনেৎস্ক পিপলস রিপাবলিককে স্বীকৃতি দিয়েছে উত্তর কোরিয়া

নিজস্ব প্রতিবেদকনিজস্ব প্রতিবেদক
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  03:25 AM, 14 July 2022

দোনেৎস্ক পিপলস রিপাবলিকের (ডিপিআর) প্রধান ডেনিস পুশিলিন বুধবার বলেছেন, ডনবাস প্রজাতন্ত্রের মিত্রবাহিনী এবং রাশিয়ান সেনাবাহিনী সেভারস্ক এবং সোলেদারে তাদের অগ্রযাত্রা অব্যাহত রেখেছে।
তিনি একটি সরাসরি সম্প্রচারে বলেন, সেভারস্ক এবং সোলেদার দখলের জন্য মিত্র বাহিনীর ইউনিটগুলো সেদিকে অগ্রসর হচ্ছে। তবে আগলেদারে কিছুটা সাফল্য অর্জিত হলেও ততটা দ্রুত নয় যতটা আশা করা হয়েছিল।
পুশিলিন বলেন, ইউক্রেনের সেনাবাহিনীর কাছ থেকে মুক্ত করা অঞ্চলে মানুষের সাথে কাজ করা সহজ। ‘লোকেরা এ মুহূর্তের জন্য অপেক্ষা করেছিল এবং তাদের মানবিক সহায়তার প্রয়োজন, কারণ তারা অনেক ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে। সেখানে আমাদের সমস্ত পরিষেবা কাজ করছে, পাবলিক রিসেপশন অফিস থেকে শুরু করে সবক্ষেত্রে নিযুক্ত আমাদের কর্মকর্তারা বোমা হামলার অধীনে কাজ করছে যখন একটি শেল যেকোনো মুহূর্তে অবতরণ করতে পারে। তা সত্ত্বেও সব পরিষেবা কঠোরভাবে তাদের দায়িত্ব পালন করছে’ ডিপিআর প্রধান বলেছেন।
ডিপিআর প্রধান আরো বলেছেন, ‘প্রজাতন্ত্রের উত্তরের মুক্তির কথা বিবেচনা করে সেখানে লজিস্টিক রুটগুলো জটিল, কারণ তারা এলপিআর [লুগানস্ক পিপলস রিপাবলিক] জুড়ে বিস্তৃত। কারণ এখন পর্যন্ত ডিপিআর অঞ্চল জুড়ে সরাসরি প্রবেশাধিকার নেই। এসব জটিলতা সময়মতো বিতরণে তাদের প্রভাব ফেলে। তবে আমরা শিখেছি এ ধরনের পরিস্থিতিতে কাজ করার জন্য। সোলোভিয়েভ.লাইভ টেলিভিশন চ্যানেল এসব কথা জানিয়েছে।
দোনেৎস্ক পিপলস রিপাবলিককে স্বীকৃতি দিয়েছে উত্তর কোরিয়া : দোনেৎস্ক নেতা ডেনিস পুশিলিন গতকাল বলেছেন, উত্তর কোরিয়া দোনেৎস্ক পিপলস রিপাবলিক (ডিপিআর) এর স্বাধীনতাকে স্বীকৃতি দিয়েছে।
‘ডেমোক্রেটিক পিপলস রিপাবলিক অফ কোরিয়া বুধবার দোনেৎস্ক পিপলস রিপাবলিককে স্বীকৃতি দিয়েছে’, তিনি টেলিগ্রামে লিখেছেন। পুশিলিন যোগ করেছেন, ‘দোনেৎস্ক পিপলস রিপাবলিকের আন্তর্জাতিক মর্যাদা এবং এর রাষ্ট্রত্ব আরো শক্তিশালী হচ্ছে। এটি আমাদের জন্য আরেকটি কূটনৈতিক বিজয়’।
তিনি উত্তর কোরিয়ার ‘ডনবাস জনগণকে সমর্থনের জন্য’ ধন্যবাদ জানান। ‘এ রাজনৈতিক সিদ্ধান্ত অর্থনৈতিক সম্পর্কের ভবিষ্যত উন্নয়নের ভিত্তিও প্রদান করবে। দ্বিপাক্ষিক অংশীদারিত্ব আমাদের কোম্পানিগুলোর জন্য তাদের বাণিজ্য সম্প্রসারণ করা সম্ভব করবে। আমি সক্রিয় এবং ফলপ্রসূ সহযোগিতার জন্য উন্মুখ’, পুশিলিন জোর দিয়ে বলেন।
ডিপিআর পররাষ্ট্রমন্ত্রী নাটালিয়া নিকোনোরোভা মঙ্গলবার বলেন যে, ডিপিআর-এর স্বীকৃতি নিয়ে উত্তর কোরিয়ার সাথে আলোচনা চলছে।
২১ ফেব্রুয়ারি রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভøাদিমির পুতিন দোনেৎস্ক এবং লুগানস্ক গণপ্রজাতন্ত্রের স্বীকৃতি ঘোষণা করেন। তাদের নেতাদের সাথে বন্ধুত্ব, সহযোগিতা এবং পারস্পরিক সহায়তার চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়। রাশিয়া ২২ ফেব্রুয়ারি ডিপিআর এবং এলপিআর উভয়ের সাথে কূটনৈতিক সম্পর্ক স্থাপন করে। দক্ষিণ ওসেটিয়া ২০১৪ সালে ডিপিআর এবং এলপিআরকে স্বাধীন রাষ্ট্র হিসেবে স্বীকৃতি দেয়। ২০১৭ সালের মে মাসে দোনেৎস্কের সাথে এবং ২০১৯ সালের মে মাসে লুগানস্কের সাথে কূটনৈতিক সম্পর্ক স্থাপন করে। আবখাজিয়ান প্রেসিডেন্ট আসলান বাজানিয়া ২০২০ সালের ২৫ ফেব্রুয়ারি দুটি প্রজাতন্ত্রের স্বাধীনতাকে স্বীকৃতি দিয়ে ডিক্রিতে স্বাক্ষর করেন। সিরিয়া উভয় ডনবাস প্রজাতন্ত্র স্বীকৃতির সিদ্ধান্ত নিয়েছে, জবাবে ইউক্রেন দামেস্কের সঙ্গে কূটনৈতিক সম্পর্ক ছিন্ন করার ঘোষণা দেয়।
আরেক আমেরিকানকে আটক করেছে রুশ সেনারা : সুয়েদি মুরেকেজি নামে একজন আমেরিকান নাগরিকের ভাই জানিয়েছেন, তার ভাইকে খেরসন থেকে ‘বিদেশী ভাড়াটে সেনা’ আখ্যা দিয়ে আটক করেছে রুশ সেনারা। তারপর তাকে রুশপন্থি বিচ্ছিন্নতাবাদী দোনেৎস্কে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। এর মাধ্যমে তিনজন আমেরিকান নাগরিককে আটক করে নিজেদের জিম্মায় নিয়েছে রাশিয়া।
সুয়েদি মুরেকেজির ভাই জানিয়েছেন, তার ভাই গত দুই বছর যাবত খেরসনে বসবাস করে আসছেন। তিনি আরো জানিয়েছেন, তারা বেশ উৎকণ্ঠার মধ্য দিয়ে সময় পার করছেন। কারণ তার ভাই বিপদে আছেন।
আমেরিকান এ ব্যক্তির ভাই আরো জানান, তারা এক মাস যাবত সুয়েদির সঙ্গে কোনো যোগাযোগ করতে পারছিলেন না। ৭ জুলাই সকালে হঠাৎ একটি ফোন আসে। সেই ফোনে সুয়েদি নিজে কথা বলে জানান, তাকে খেরসন থেকে আটক করে দোনেৎস্কে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। সুয়েদি ফোনে আরো জানিয়েছেন, তাকে রাখা হয়েছে আটক অপর দুই আমেরিকান আলেক্সান্ডার দ্রুয়েকে এবং অ্যান্ডি টাইয়ের সঙ্গে।
এ আমেরিকানের ভাই দাবি করেছেন, সুয়েদি চার বছর আগে ইউক্রেনে যান। ২০২০ সালে তিনি খেরসনে বসবাস শুরু করেন। যুদ্ধ শুরু হওয়ার পর তিনি রুশদের বিরুদ্ধে যুদ্ধে যোগ দেননি। সূত্র : দ্য গার্ডিয়ান ও তাস।