দিনভর সিলেটের বন্যা পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করেছেন বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামী

নিজস্ব প্রতিবেদকনিজস্ব প্রতিবেদক
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  09:28 PM, 18 June 2022

 দিনভর সিলেটের বন্যা পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করেছেন বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর ডা: শফিকুর রহমান ও ভারপ্রাপ্ত সেক্রেটারী জেনারেল মাওলানা এ টি এম মা’ছুমসহ জামায়াতের কেন্দ্রীয় প্রতিনিধি দল। গতকাল শনিবার দিনভর সিলেট মহানগর এলাকাসহ শহরতলীর বিভিন্ন বন্যা কবলিত এলাকা পরিদর্শন করেন তাঁরা। এসময় তাঁরা বন্যা দুর্গত মানুষের মাঝে জামায়াতের পক্ষ থেকে ত্রাণ সহায়তা প্রদান করেন।

আমীরে জামায়াত ডা: শফিকুর রহমান শনিবার সদরের সোনাতলা, বলাউড়া, বাদাঘাট মডেল উচ্চ বিদ্যালয় আশ্রয় কেন্দ্র, ৩৯নং ওয়ার্ডের রশিদিয়া মাদ্রাসা আশ্রয় কেন্দ্র, ৩৮নং ওয়ার্ডের টুকেরবাজার এলাকায় বন্যা কবলিত মানুষের মাঝে ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ করেন।

এসময় উপস্থিত ছিলেন জামায়াতের সহকারী সেক্রেটারী জেনারেল এডভোকেট এহসানুল মাহবুব জুবায়ের, সিলেট মহানগরী আমীর মুহাম্মদ ফখরুল ইসলাম, জেলা উত্তরের নায়েবে আমীর সৈয়দ ফয়জুল্লাহ বাহার, সহকারী সেক্রেটারী মাওলানা ইসলাম উদ্দিন, সদর থানা জামায়াতের আমীর সুলতান খান, জালালাবাদ থানা সেক্রেটারী মাওলানা জুনাইদ আল হাবীব, বাংলাদেশ ইসলামী ছাত্রশিবির শাহজালাল বিশ্ববিদ্যালয় সভাপতি রাহাত চৌধুরী প্রমুখ।

এদিকে শনিবার জামায়াতের ভারপ্রাপ্ত সেক্রেটারী জেনারেল মাওলানা এ টি এম মা’ছুমের নেতৃত্বে জামায়াতের কেন্দ্রীয় প্রতিনিধি দল জৈন্তাপুরের উদ্দেশ্যে রওয়ানা দিয়ে প্রতিকুল আবহাওয়ার কারণে মাঝপথ থেকে ফিরে আসতে বাধ্য হন। এরপর তিনি নগরীর ৯নং ওয়ার্ডের বাগবাড়ী বর্ণমালা স্কুল আশ্রয় কেন্দ্রে বন্যাদুর্গতদের মাঝে ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ করেন। তাদের সার্বিক খোঁজ-খবর নেন ও সহমর্মিতা প্রদর্শন করেন।

এসময় উপস্থিত ছিলেন জামায়াতের নির্বাহী পরিষদ সদস্য ও ঢাকা মহানগরী দক্ষিণের আমীর নূরুল ইসলাম বুলবুল, নির্বাহী পরিষদ সদস্য ও ঢাকা মহানগরী উত্তরের আমীর মুহাম্মদ সেলিম উদ্দিন, সিলেট জেলা উত্তরের আমীর হাফিজ আনোয়ার হোসাইন খান। এছাড়া সিলেট মহানগর, উত্তর ও দক্ষিণ সাংগঠনিক জেলা জামায়াতের বিভিন্ন স্তরের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

বন্যা পরিস্তিতি পর্যবেক্ষণ ও ত্রাণ বিতরণকালে শীর্ষ জামায়াত নেতৃবৃন্দ বলেন, এক মাসের ব্যবধানে ফের ভয়ঙ্করী বন্যায় সিলেটবাসীর এই দুর্যোগে আমরা মর্মাহত। সিলেট ও সুনামগঞ্জের বন্যার্ত মানুষের সাহায্যার্থে জামায়াত এগিয়ে এসেছে। বন্যাদুর্গত মানুষের সাহায্যে জামায়াতের সর্বস্তরের জনশক্তি কাজ করছে। এ সময় তাঁরা সমাজের সামর্থবান মানুষকে বন্যার্তদের ত্রাণ সহায়তায় এগিয়ে আসার আহ্বান জানান।

সিলেটে কেন্দ্রীয় ত্রাণ কমিটির সভা অনুষ্ঠিত : জামায়াতে ইসলামীর আমীর ডা: শফিকুর রহমান বলেছেন, সিলেট জুড়ে স্মরণকালের বন্যাকালীন বিপর্যয় সৃষ্টি হয়েছে। বন্যার এমন পরিস্থিতি সিলেট তথা দেশবাসী আগে আর দেখেননি। পানিবৃদ্ধির কারণে পুরো সিলেট জুড়ে বিদ্যুৎ, নেটওয়ার্ক, কিছু ক্ষেত্রে গ্যাসও বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে। অনেক স্থানে দোকানপাট বন্ধ রয়েছে। পাহাড়ি ঢল ও ভারী বর্ষণের ফলে রাস্তা ও নদী একাকার হয়ে এমন পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে সিলেট ও সুনামগঞ্জের প্রতিটি উপজেলায়। সিলেট নগরীর প্রায় পুরোটা প্লাবিত।

তিনি  আরো বলেন, সিলেটবাসীর এই কঠিন পরিস্থিতিতে জামায়াতের পক্ষ থেকে ত্রাণ কার্যক্রমের জন্য ৫০ লক্ষ টাকা বরাদ্দ করা হয়েছে। পর্যায়ক্রমে আরো সহযোগিতা করা হবে। বন্যার্ত মানুষের সাহায্যার্থে জামায়াতের প্রত্যেক জেলা ও মহানগর শাখায় পৃথক কমিটি করে ত্রাণ কার্যক্রম পরিচালনা করা হবে। জামায়াতের সকল স্তরের নেতাকর্মীদের ঘরে বসে না থেকে অসহায়দের পাশে দাঁড়াতে হবে, সাধ্যমত সহযোগিতা করতে হবে। একই সাথে মানবতার আহŸানে সাড়া দিয়ে সামর্থবানদের এগিয়ে আসতে হবে।

গতকাল শনিবার সিলেটে অনুষ্ঠিত জামায়াতের কেন্দ্রীয় ত্রাণ কমিটির সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন। কেন্দ্রীয় ত্রাণ কমিটির আহŸায়ক ও জামায়াতের কেন্দ্রীয় ভারপ্রাপ্ত সেক্রেটারী জেনারেল মাওলানা এ টি এম মা’ছুমের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় বিশেষ অতিথি ছিলেন জামায়াতের নির্বাহী পরিষদ সদস্য ও ঢাকা মহানগরী দক্ষিণের আমীর নূরুল ইসলাম বুলবুল, নির্বাহী পরিষদ সদস্য ও ঢাকা মহানগরী উত্তরের আমীর জনাব মুহাম্মদ সেলিম উদ্দিন, ত্রাণ কমিটির প্রধান সমন্বয়ক ও জামায়াতের সহকারী সেক্রেটারী জেনারেল এডভোকেট এহসানুল মাহবুব জুবায়ের।

সভায় আরো উপস্থিত ছিলেন সিলেট মহানগর জামায়াতের আমীর জনাব মুহাম্মদ ফখরুল ইসলাম, উত্তর সাংগঠনিক জেলার আমীর হাফিজ আনোয়ার হোসাইন খান, দক্ষিণ সাংগঠনিক জেলার আমীর অধ্যক্ষ আব্দুল হান্নান, জেলা উত্তরের নায়েবে আমীর সৈয়দ ফয়জুল্লাহ বাহার ও সহকারী সেক্রেটারী মাওলানা ইসলাম উদ্দিন।