তরুণী আত্মহত্যার প্ররোচনায় বসুন্ধরার এমডি’র বিরু‌দ্ধে মামলা।

জয়‌বি‌ডিজয়‌বি‌ডি
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  01:59 PM, 27 April 2021

এক তরুণীর লাশ উদ্ধারের ঘটনায় বসুন্ধরার ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) সায়েম সোবহান আনভীরের বিরুদ্ধে আত্মহত্যার প্ররোচনায় গুলশান থানায় মামলা হয়েছে।

রাজধানীর গুলশানের একটি ফ্ল্যাট থেকে মোসারাত জাহান মুনিয়া (২০) নামে এক তরুণীর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধারের পর তার বড় বোন নুসরাত জাহান সোমবার গভীর রাতে এ মামলা করেন।

সোমবার ২৬ এপ্রিল সন্ধ্যায় ওই বাসা থেকে সিলিং ফ্যানের সঙ্গে ঝুলন্ত অবস্থায় মুনিয়ার লাশ উদ্ধার করে গুলশান থানা পুলিশ। ময়নাতদন্তের জন্য লাশ ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। ঘটনাস্থল থেকে আলামত সংগ্রহ করেছে পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগ। সিসি ক্যামেরার ফুটেজ এবং মুনিয়ার ব্যবহৃত ডিভাইসগুলো জব্দ করেছে পুলিশ।

মামলা সূত্রে পুলিশ জানিয়েছে, তরুণীর সঙ্গে বসুন্ধরা গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক সায়েম সোবহান আনভীরের সম্পর্ক ছিল দুই বছর। আনভীর এক বছর মেয়েটিকে বনানীর ফ্ল্যাটে রাখেন। পরে আনভীরের সঙ্গে মনোমালিন্য হলে মুনিয়া কুমিল্লায় চলে যান। তবে মার্চ মাসে ঢাকায় এসে গুলশানের ওই ফ্ল্যাটে থাকা শুরু করেন।

পুলিশ সূত্রে আরও জানা গেছে, গুলশান দুই নম্বর অ্যাভিনিউর ১২০ নম্বর সড়কের ১৯ নম্বর প্লটের বি/৩ ফ্ল্যাটে একাই থাকতেন মুনিয়া। চলতি বছরের মার্চ মাস থেকে এক লাখ টাকা মাসিক ভাড়ায় তিনি ওই ফ্ল্যাটে ওঠেন। দুই মাসের ভাড়া অগ্রিম পরিশোধ করা হয়েছে।

মুনিয়া মিরপুরের ক্যান্টনমেন্ট পাবলিক স্কুলের উচ্চ মাধ্যমিকের শিক্ষার্থী ছিলেন। তার বাবার নাম মৃত শফিকুর রহমান। গ্রামের বাড়ি কুমিল্লা।

মামলা সূত্রে জানা গেছে, মুনিয়া রোববার তার বড় বোনকে ফোন করে বলেন, তিনি সমস্যায় পড়েছেন। এ কথা শুনে তার বড় বোন কুমিল্লা থেকে ঢাকায় আসেন। সোমবার সন্ধ্যায় ওই ফ্ল্যাটে যান তিনি। অনেকক্ষণ কলিংবেল দেওয়ার পর দরজা না খোলায় বাড়িওয়ালাকে খবর দিয়ে বাইরে থেকে লক খোলা হয়। ঘরে ঢুকে দেখেন বোন ফ্যানের সঙ্গে ঝুলে আছেন, তখনই পুলিশে খবর দেওয়া হয়।

গুলশান থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবুল হাসান জানান, মেয়েটি কেন আত্মহত্যা করেছে এবং এর পেছনে কারো ইন্ধন রয়েছে কি না তা আমরা খতিয়ে দেখছি। ঘটনাস্থল থেকে সিসিটিভির ফুটেজ সংগ্রহ করা হয়েছে। ফুটেজ বিশ্লেষণ করার মাধ্যমে মামলার তদন্তে গুরুত্বপূর্ণ অগ্রগতি আসবে।’

আপনার মতামত লিখুন :