০৬:৪৬ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ২৪ জুন ২০২৪, ১০ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ডেঙ্গু আক্রান্ত শিশুকে ভর্তি নিয়ে হাতাহাতি, বাবা থানায়

রাজধানীর মুগদা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ডেঙ্গু আক্রান্ত শিশুকে ভর্তি করানো নিয়ে শিশুর বাবা ও চিকিৎসকের মধ্যে হাতাহাতির ঘটনা ঘটেছে।
এ ঘটনায় অবশেষে শিশুটিকে হাসপাতালে ভর্তি করা হলেও তার বাবাকে পার্শ্ববর্তী থানায় আটক রাখা হয়েছে বলে জানা গেছে।

বুধবার দুপুরের দিকে মুগদা হাসপাতালের জরুরি বিভাগে এ ঘটনা ঘটে।
বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. আহমেদুল কবীর।

তিনি বলেন, ঘটনাটি আমাদের কানে এসেছে। বিষয়টি নিয়ে বিস্তারিত জানতে একটি তদন্ত কমিটিও গঠন করেছি।
যতটুকু জেনেছি, আক্রান্ত একটি শিশু নিয়ে তার বাবা হাসপাতালে আসেন।
কিন্তু ইতিমধ্যে হাসপাতালটিতে ডেঙ্গু আক্রান্ত দুজন শিশুকে একটি বিছানায় রেখে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে।
নতুন করে শয্যা ফাঁকা না হওয়ায় শিশুর বাবাকে পার্শ্ববর্তী অন্য কোনো হাসপাতালে চিকিৎসা নেয়ার অনুরোধ জানানো হয়।
এরপর কথা কাটাকাটির জেরে শিশুটির বাবা চিকিৎসকের ওপর চড়াও হন।

আহমেদুল কবীর বলেন, এক পর্যায়ে শিশুটির বাবা চিকিৎসকের কলার ধরেন এবং কিল-ঘুষি মারতে থাকেন।
পরে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর সহযোগিতায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ওই ব্যক্তিকে থানায় নিয়ে যাওয়া হয়েছে।

তিনি আরও বলেন, মুগদা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ইতিমধ্যে ৬ শতাধিক ডেঙ্গু রোগী ভর্তি রয়েছেন।
এখন আর নতুন করে কোনো রোগী ভর্তিতে মুগদা ক্যাপাবল নয়।

চিকিৎসকরা রাত-দিন রোগীদের সেবা দিয়ে যাচ্ছেন।
এমন অবস্থায় যদি রোগীর স্বজনরা এভাবে চিকিৎসকদের ওপর হামলা করেন, তাহলে চিকিৎসকরা সবসময় হাইপার হয়ে থাকবেন এবং সেবা দিতে চাইবেন না।

Tag :
About Author Information

ভারতে ৩শ’ রুপির গয়না ৬ কোটিতে বিক্রি করে মার্কিন নারীর সঙ্গে প্রতারণা।

ডেঙ্গু আক্রান্ত শিশুকে ভর্তি নিয়ে হাতাহাতি, বাবা থানায়

Update Time : ০৫:৪৯:৫৫ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৬ জুলাই ২০২৩

রাজধানীর মুগদা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ডেঙ্গু আক্রান্ত শিশুকে ভর্তি করানো নিয়ে শিশুর বাবা ও চিকিৎসকের মধ্যে হাতাহাতির ঘটনা ঘটেছে।
এ ঘটনায় অবশেষে শিশুটিকে হাসপাতালে ভর্তি করা হলেও তার বাবাকে পার্শ্ববর্তী থানায় আটক রাখা হয়েছে বলে জানা গেছে।

বুধবার দুপুরের দিকে মুগদা হাসপাতালের জরুরি বিভাগে এ ঘটনা ঘটে।
বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. আহমেদুল কবীর।

তিনি বলেন, ঘটনাটি আমাদের কানে এসেছে। বিষয়টি নিয়ে বিস্তারিত জানতে একটি তদন্ত কমিটিও গঠন করেছি।
যতটুকু জেনেছি, আক্রান্ত একটি শিশু নিয়ে তার বাবা হাসপাতালে আসেন।
কিন্তু ইতিমধ্যে হাসপাতালটিতে ডেঙ্গু আক্রান্ত দুজন শিশুকে একটি বিছানায় রেখে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে।
নতুন করে শয্যা ফাঁকা না হওয়ায় শিশুর বাবাকে পার্শ্ববর্তী অন্য কোনো হাসপাতালে চিকিৎসা নেয়ার অনুরোধ জানানো হয়।
এরপর কথা কাটাকাটির জেরে শিশুটির বাবা চিকিৎসকের ওপর চড়াও হন।

আহমেদুল কবীর বলেন, এক পর্যায়ে শিশুটির বাবা চিকিৎসকের কলার ধরেন এবং কিল-ঘুষি মারতে থাকেন।
পরে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর সহযোগিতায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ওই ব্যক্তিকে থানায় নিয়ে যাওয়া হয়েছে।

তিনি আরও বলেন, মুগদা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ইতিমধ্যে ৬ শতাধিক ডেঙ্গু রোগী ভর্তি রয়েছেন।
এখন আর নতুন করে কোনো রোগী ভর্তিতে মুগদা ক্যাপাবল নয়।

চিকিৎসকরা রাত-দিন রোগীদের সেবা দিয়ে যাচ্ছেন।
এমন অবস্থায় যদি রোগীর স্বজনরা এভাবে চিকিৎসকদের ওপর হামলা করেন, তাহলে চিকিৎসকরা সবসময় হাইপার হয়ে থাকবেন এবং সেবা দিতে চাইবেন না।