০৬:৩৪ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ০৪ মার্চ ২০২৪, ২১ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

চট্টগ্রামেও মেট্রোরেল হবে: প্রধানমন্ত্রী।

  • Reporter Name
  • Update Time : ০২:৪৫:২৭ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ৪ জানুয়ারী ২০২২
  • 11

রাজধানীর পাশাপাশি চট্টগ্রামেও মেট্রোরেল হবে বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

মঙ্গলবার জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটির (একনেক) সভায় প্রধানমন্ত্রী একথা বলেন।

রাজধানীর শেরেবাংলা নগরের এনইসি সম্মেলন কক্ষে একনেক সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় গণভবন থেকে ভার্চুয়ালি সভাপতিত্ব করেন প্রধানমন্ত্রী ও একনেক চেয়ারপারসন শেখ হাসিনা।

পরে সাংবাদিকদের বিফ্র করেন পরিকল্পনামন্ত্রী এমএ মান্নান ও পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী ড. শামসুল আলম।

পরে পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান জানান, সভায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, চট্টগ্রাম বিমানবন্দর থেকে থেকে চট্টগ্রাম রেল স্টেশন পযর্ন্ত মেট্রোরেল হতে হবে। এছাড়া বড় শহর যেখানে আছে, বিমানবন্দর আছে সেখানেও মেট্রোরেল হতে পারে।

প্রধানমন্ত্রীর অনুশাসন তুলে ধরে মন্ত্রী বলেন, “শুধু ঢাকায় নয় আগামীতে চট্টগ্রামেও প্রধানমন্ত্রী মেট্রোরেল নির্মাণের কথা বলেছেন। আমরা জানি ইতোমধ্যে প্রাথমিক কাজ শুরু করেছে। আশা করি, দ্রুত সময়ে সংশ্লিষ্টরা চট্টগ্রামে মেট্রোরেল নির্মাণ প্রকল্প একনেক সভায় পাঠাবেন। আমরাও এটা অনুমোদন করে দেব।

“যেখানে বড় বড় শহর আছে, এছাড়া যে শহরে বিমানবন্দর আছে সেখানেও মেট্রোরেল হতে পারে। এই বিষয়ে আমরা প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেব।”

সরকারের তিনটি বড় প্রকল্প পদ্মাসেতু, মেট্রোরেল ও বঙ্গবন্ধু টানেল এ বছরই চালু হবে বলেও জানান এমএ মান্নান।

একনেকের সভায় মোবাইল গেম ও অ্যাপ্লিকেশনসহ ১০ প্রকল্প অনুমোদন দেওয়া হয়। এগুলো বাস্তবায়নে মোট ব্যয় ধরা হয়েছে ১১ হাজার ২১১ কোটি ৪৪ লাখ টাকা।

পরিকল্পনামন্ত্রী জানান, এসব প্রকল্প বাস্তবায়নে সরকারি তহবিল থেকে ১০ হাজার ৭১৩ কোটি ২৫ লাখ টাকা এবং বাস্তবায়নকারী সংস্থা থেকে ৪৯৮ কোটি ১৯ লাখ টাকা ব্যয় করা হবে।

Tag :
About Author Information

জনপ্রিয় সংবাদ

একুশে ফেব্রুয়ারির প্রথম প্রহরে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা

চট্টগ্রামেও মেট্রোরেল হবে: প্রধানমন্ত্রী।

Update Time : ০২:৪৫:২৭ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ৪ জানুয়ারী ২০২২

রাজধানীর পাশাপাশি চট্টগ্রামেও মেট্রোরেল হবে বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

মঙ্গলবার জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটির (একনেক) সভায় প্রধানমন্ত্রী একথা বলেন।

রাজধানীর শেরেবাংলা নগরের এনইসি সম্মেলন কক্ষে একনেক সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় গণভবন থেকে ভার্চুয়ালি সভাপতিত্ব করেন প্রধানমন্ত্রী ও একনেক চেয়ারপারসন শেখ হাসিনা।

পরে সাংবাদিকদের বিফ্র করেন পরিকল্পনামন্ত্রী এমএ মান্নান ও পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী ড. শামসুল আলম।

পরে পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান জানান, সভায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, চট্টগ্রাম বিমানবন্দর থেকে থেকে চট্টগ্রাম রেল স্টেশন পযর্ন্ত মেট্রোরেল হতে হবে। এছাড়া বড় শহর যেখানে আছে, বিমানবন্দর আছে সেখানেও মেট্রোরেল হতে পারে।

প্রধানমন্ত্রীর অনুশাসন তুলে ধরে মন্ত্রী বলেন, “শুধু ঢাকায় নয় আগামীতে চট্টগ্রামেও প্রধানমন্ত্রী মেট্রোরেল নির্মাণের কথা বলেছেন। আমরা জানি ইতোমধ্যে প্রাথমিক কাজ শুরু করেছে। আশা করি, দ্রুত সময়ে সংশ্লিষ্টরা চট্টগ্রামে মেট্রোরেল নির্মাণ প্রকল্প একনেক সভায় পাঠাবেন। আমরাও এটা অনুমোদন করে দেব।

“যেখানে বড় বড় শহর আছে, এছাড়া যে শহরে বিমানবন্দর আছে সেখানেও মেট্রোরেল হতে পারে। এই বিষয়ে আমরা প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেব।”

সরকারের তিনটি বড় প্রকল্প পদ্মাসেতু, মেট্রোরেল ও বঙ্গবন্ধু টানেল এ বছরই চালু হবে বলেও জানান এমএ মান্নান।

একনেকের সভায় মোবাইল গেম ও অ্যাপ্লিকেশনসহ ১০ প্রকল্প অনুমোদন দেওয়া হয়। এগুলো বাস্তবায়নে মোট ব্যয় ধরা হয়েছে ১১ হাজার ২১১ কোটি ৪৪ লাখ টাকা।

পরিকল্পনামন্ত্রী জানান, এসব প্রকল্প বাস্তবায়নে সরকারি তহবিল থেকে ১০ হাজার ৭১৩ কোটি ২৫ লাখ টাকা এবং বাস্তবায়নকারী সংস্থা থেকে ৪৯৮ কোটি ১৯ লাখ টাকা ব্যয় করা হবে।