গ্রেফতারকৃত সকল আলেম-উলামাদের অবিলম্বে মুক্তির দাবী জানা‌লেন পীর সাহেব চরমোনাই।

জয়‌বি‌ডিজয়‌বি‌ডি
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  04:29 PM, 30 May 2021

গ্রেফতারকৃত সকল আলেম-উলামাদের অবিলম্বে মুক্তি দিন। গ্রেফতাকৃত আলেম-উলামাদের জামিন পাওয়া সাংবিধানিক অধিকার। গ্রেফতারকৃত আলেমদের জামিনের আবেদন করা হলে কোনো আমলেই নেয়া হয় না। গ্রেফতারকৃত আলেমদের বার বার রিমান্ডে নেয়া যৌক্তিক কোনো কারণ নেই। বি-বাড়িয়াসহ অন্যান্য স্থানে যারা নৈরাজ্য সৃষ্টি করছে তাদের বিচারের মুখোমুখী করা হোক। হেফাজতে ইসলাম একটি অরাজনৈতিক সংগঠন। আর ইসলামী আন্দোলন একটি রাজনৈতিক দল। হেফাজতের সাথে ইসলামী আন্দোলনের কোনো সর্ম্পক নেই। সকল নিরপরাধ আলেমদের মুক্তি দিতে হবে। সারাদেশে ইসলামী আন্দোলনের গ্রেফতারকৃত আলেমদেরও মুক্তি দিতে হবে।

আজ রোববার দুপুরে পুরানা পল্টনস্থ দলীয় কার্যালয়ে এক প্রেস ব্রিফিংয়ে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ এর আমীর মুফতি সৈয়দ মোহাম্মদ রেজাউল করীম পীর সাহেব চরমোনাই এসব কথা বলেন। প্রেস ব্রিফিংয়ে পীর সাহেব চরমোনাই বলেন, আসন্ন জাতীয় সংসদ অধিবেশনে ইসরাইলের সাম্প্রতিক বর্বরতার বিরুদ্ধে নিন্দা প্রস্তাব পাশ করতে হবে।

আসন্ন জাতিসঙ্ঘ অধিবেশনে প্রধানমন্ত্রীর ভাষণে স্বাধীন সার্বভৌম ফিলিস্তিনের প্রতি সমর্থন পুন:ব্যক্ত করে ইসরাইলের বিরুদ্ধে নিন্দা করতে হবে। পীর সাহেব চরমোনাই বলেন, ফিলিস্তিনে ইসরাইলি বর্বরতার বিরুদ্ধে যখন গোটা বিশ্বের মানুষ সোচ্চার তখন বাংলাদেশের পাসপোট থেকে ৫০ বছরের ঐতিহ্য ছুড়ে ফেলে ’একসেপ্ট ইসরাইল’শব্দদ্বয় বাদ দেয়া হয়েছে। এতে দেশবাসী বিস্মিত এবং চরমভাবে ক্ষুব্ধ। পাসপোর্ট থেকে এই শব্দ দু’টি বাদ দেয়া কার্যত ইসরাইলকে স্বীকৃতি দেয়া। এ ব্যাপারে পররাষ্ট্রমন্ত্রীর বক্তব্য জনগণকে হতবাক করেছে। তার বক্তব্য অযুক্তিন নয় বরং একই সাথে অসত্য যুক্তি। পাসপোর্টের আর্ন্তাতিক মান রক্ষায় ’একসেপ্ট ইসরাইল শব্দদ্বয় কোন বাধা নয়। এই শব্দদ্বয় সহই মালয়েশিয়ার পাসপোর্ট বিশ্বের ১৯তম শক্তিশালী পাসপোর্ট।

সরকারের উদাসীনতা, অদূরদর্শিতা ও খামখেয়ালীতে দেশের শিক্ষাখাত আজ ধ্বংসস্তূপে পরিণত হয়েছে। প্রেস ব্রিফিংয়ে বলা হয়, সন্ত্রাসী ইসরাইলের সাথে অশুভ গোপন সর্ম্পক স্থান চেষ্টা, উলামা নির্যাতন, গণবিরোধী বাজেট, শিক্ষা ধ্বংসের ষড়যন্ত্র ওনতজানু ভারত নির্ভর আত্মধাতী পররাষ্ট্রনীতি থেকে সরে আসতে হবে। স্বাস্থ্যখাত ধ্বংসে জড়িত মন্ত্রী ও সংশ্লিষ্টদের সরাতে হবে। অন্যথায় সচেতন নাগরিকদের সাথে পরামর্শ করে ইসলামী আন্দোলন বৃহত্তর আন্দোলনে যেতে বাধ্য হবে।

পীর সাহেব চরমোনাই অবিলম্বে দেশের সকল শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দেয়ার দাবিতে আগামী ২ জুন ঢাকায় জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে মানববন্ধন এবং ৩ জুন দেশব্যাপী প্রতি জেলা ও মহানগরে মানববন্ধন কর্মসূচি ঘোষণা করেন। তিনি পাসপোর্ট থেকে একসেপ্ট ইসরালি’ বাদ দেয়ার প্রতিবাদ এবং তা’সংযোজনের দাবিতে আগামী ৫ জুন শনিবার বিকেল ৩টায় বায়তুল মোকাররম জাতীয় মসজিদের উত্তর গেইট থেকে বিক্ষোভ মিছিলের ঘোষণা দেন। প্রেস ব্রিফিংয়ে দলের শীর্ষ নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

আপনার মতামত লিখুন :