কোয়ার্টার ফাইনালে স্পেন মুখোমুখি হচ্ছে সুইজারল্যান্ডের।

joybd24joybd24
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  10:58 PM, 02 July 2021

বিশ্বচ্যাম্পিয়ন ফ্রান্স কে বিদায় করা সুইজারল্যান্ডের ইউরো মিশন কি সুপার এইটেই শেষ হয়ে যাবে? নাকি, সুইস রূপকথায় যুক্ত হবে নতুন কোন অধ্যায়? স্পেনের বিপক্ষে হাইভোল্টেজ ম্যাচে সাসপেনশনের জন্য থাকছেন না নিয়মিত অধিনায়ক গ্র্যানিট শাকা। অন্যদিকে স্পেন দলে আজ ফিরছেন ডিফেন্ডার এরিক গার্সিয়া। সেইন্ট পিটার্সবার্গে সেমিফাইনালে যাওয়ার এই লড়াই শুরু হবে বাংলাদেশ সময় রাত ১০ টায়।

রাউন্ড অফ সিক্সটিনে বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন ফ্রান্স বধের সুইস রূপকথার মূল কারিগর গ্র্যানিট শাকা সে ম্যাচের সময়ই জানতেন, সাসপেনশনের কারণে তার খেলা হচ্ছে না কোয়ার্টার ফাইনাল। মধ্যমাঠে অধিনায়কের এই শূন্যতা আজ বোধ করবে সুইসরা। তার পরিবর্তে আজ খুব সম্ভবত দেখা যাবে ডেনিস জাকারিয়াকে। সেন্ট্রাল মিডে তার সঙ্গী হবেন রেমো ফ্রিউলার। মধ্যমাঠের দু পাশের দুই উইং এ আক্রমণের জোগান দেয়ার কাজ থাকবে স্টিভেন জুবের এবং সিলভিয়ান উইডমারের।

রিকার্ডো রদ্রিগুয়েজ এর সাথে নিকো এলভেদি আর ম্যানুয়েল আকানজির ডিফেন্স লাইনআপ যথেষ্ট পরীক্ষা নেবে স্পেনের আক্রমণভাগের। জেরদান শাকিরির নেতৃত্বে আক্রমণভাগের অন্যতম ভরসা ব্রিল এম্বোলো। গত ম্যাচে ২ গোল করা হ্যারিস সেফেরোভিচও থাকবেন স্পটলাইটে। সব মিলিয়ে শুরুর লাইনআপে ৩-৪-১-২ ফর্মেশনে খেলতে পারে সুইজারল্যান্ড, যা অনেক প্রতিপক্ষের জন্যই দুর্বোধ্য।

টিকিটাকার ছন্দে মুখরিত স্প্যানিশ ফুটবলে রাউন্ড অফ সিক্সটিন ছিল সুসময়। ক্রোয়েশিয়ার সাথে ম্যাচে খানিকটা দুশ্চিন্তা ছিল ডিফেন্স নিয়ে । সেই দুর্বলতাও আজ কাটিয়ে উঠবে স্পেন এরিক গার্সিয়ার প্রত্যাবর্তনের মাধ্যমে । সেন্টার ব্যাকে তার সংগী হবেন আয়মেরিক লাপোর্তে। আর দু’পাশের দুই ডিফেন্সিং পজিশন সামলাবেন জর্ডি আলবা এবং সিজার আজপিলিকেটা।

মধ্যমাঠে বুসকেটস, পেদ্রি এবং কোকের বিকল্প নেই। শুধু স্পেনের ফুটবলেই নয়, বিশ্ব ফুটবলেরও অন্যতম সেরা মিডফিল্ডার এই তিনজন।

ক্রোয়েশিয়ার রক্ষণ নিয়ে মোটামুটি ছেলেখেলা করা স্পেনের এটাকিং এন্ডে দেখা যাবে পাবলো সারাবিয়া, ফেরান তোরেস এবং আলভারো মোরাতাকে। শুরুর লাইনআপে ৪-৩-৩ ফর্মেশনই থাকবে লুইস এনরিকের ট্যাকটিকস।

দু’দলের ২২ দেখায় ১৬ জয় স্পেনের। ৫ ড্র এর বিপরীতে মাত্র ১ টি জয় সুইজারল্যান্ডের। কিন্তু এবারের অঘটনঘটনপটিয়সী ইউরোতে যে মানের ফুটবল হচ্ছে তাতে সুইসরা যদি নতুন ঘটনার জন্ম দেয় সেখানেও অবাক হওয়ার কিছু থাকবে না ।