কুমিল্লা-৬ আসনের এমপি আ ক ম বাহাউদ্দিন বাহারকে তার নির্বাচনী এলাকা ত্যাগ করার নির্দেশ

নিজস্ব প্রতিবেদকনিজস্ব প্রতিবেদক
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  10:14 PM, 08 June 2022
এমপি আ ক ম বাহাউদ্দিন

কুমিল্লা সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে আচরণবিধি লঙ্ঘন করে দলীয় প্রার্থীর পক্ষে প্রচারণা চালানোর অভিযোগে কুমিল্লা-৬ আসনের এমপি আ ক ম বাহাউদ্দিন বাহারকে তার নির্বাচনী এলাকা ত্যাগ করার নির্দেশ দিয়ে চিঠি দিয়েছে নির্বাচন কমিশন। বুধবার নির্বাচন কমিশন চিঠি দিয়ে তাকে এলাকা ছাড়ার নির্দেশ দেয়। এমপি বাহারের উদ্দেশ্যে লেখা ওই চিঠিতে বলা হয়েছে, যেহেতু আপনি বিধি বহির্ভূতভাবে কৌশলে নির্বাচনি প্রচারণায় অংশগ্রহণ করছেন, তাই ২৫৪ কমিল্লা-৬ নির্বাচনি এলাকা ত্যাগের নির্দেশনা দেয়ার জন্য মাননীয় নির্বাচন কমিশন সিদ্ধান্ত প্রদান করেছেন। এমতাবস্থায়, অনতিবিলম্বে আপনাকে উল্লিখিত নির্বাচনি এলাকা ত্যাগ করে আচরণ বিধি প্রতিপালন বিষয়ে নির্বাচন কমিশনকে সহযোগিতা করার জন্য বিনীতভাবে অনুরোধ করছি। চিঠিতে আরো বলা হয়, কুমিল্লা সিটি কপোরেশন নির্বাচন সুষ্ঠু, নিরপেক্ষ এবং শান্তিপূর্ণ করার জন্য নির্বাচন কমিশন এবং নির্বাচন সংশ্লিষ্ট সকল কর্মকর্তা আন্তরিকভাবে চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন। সিটি কর্পোরেশন (নির্বাচন আচরণ) বিধিমালা, ২০১৬ এর ২২ সরকারি সুবিধাভোগী অতি গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তি নির্বাচনি এলাকায় প্রচারণায় বা নির্বাচনী কার্যক্রমে অংশগ্রহণ করতে পারেন না। বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম এবং প্রিন্ট মিডিয়ায় প্রকাশিত সংবাদে দেখা যাচ্ছে যে অতি গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তি কৌশলে প্রচারণায় অংশগ্রহণ করছেন। বুধবার দৈনিক যুগান্তর এবং দৈনিক প্রথম আলো পত্রিকায় প্রকাশিত সংবাদে দেখা যায় যে, কুমিল্লা-৬ আসনের এমপি আ ক ম বাহাউদ্দিন অত্যন্ত সূক্ষ্ম কৌশলে নির্বাচনী প্রচারণায় অংশগ্রহন করছেন, যা সিটি কর্পোরেশন (নির্বাচন আচরণ) বিধিমালা, ২০১৬ এর ২২ বিধির লংঘন। এছাড়া প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীর লিখিত অভিযোগের প্রেক্ষিতে বিষয়টি স্থানীয়ভাবে তদন্ত করালে লিখিত অভিযোগের সত্যতা পাওয়া যায়। যা মোটেই কাম্য নয়।

এর আগে কুমিল্লা মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি বাহার আচরণবিধি লঙ্ঘন করে তার দলীয় মেয়র প্রার্থী আরফানুল হক রিফাতের পক্ষে সভায় অংশ নিলে তাকে সতর্ক করে চিঠি দিয়েছিল ইসি।এছাড়াও মঙ্গলবার স্বতন্ত্র মেয়রপ্রার্থী মনিরুল হক সাক্কু অভিযোগ করেন, বাহার নির্বাচনী এলাকায় অবস্থান করে মহানগর দলীয় কার্যালয়সহ বিভিন্ন জায়গায় মহানগর ও আদর্শ সদর উপজেলার নেতাকর্মীদের একত্রিত করে নির্বাচনী কার্যক্রম পরিচালনা করছেন। এ ছাড়া পাশের সদর দক্ষিণ ও লালমাই উপজেলার নেতাকর্মীদের নিয়ে যাচ্ছেন বিভিন্ন ভোটকেন্দ্রে, দিচ্ছেন নানা নির্দেশনা।