০৮:৩৪ অপরাহ্ন, শনিবার, ০২ মার্চ ২০২৪, ১৯ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

করোনা টিকার বুস্টার ডোজ নিতে আগ্রহ কমেছে মানুষের।

  • Reporter Name
  • Update Time : ১১:১০:৪৮ অপরাহ্ন, সোমবার, ১৮ জুলাই ২০২২
  • 16

করোনা টিকার বুস্টার ডোজ নিতে আগ্রহ কমেছে মানুষের। টিকার দ্বিতীয় ডোজ নেয়ার হার ৭০ হলেও বুস্টারের ক্ষেত্রে তা মাত্র ১৮ ভাগ। স্বাস্থ্য বিভাগ বলছে, টিকায় গতি বাড়াতে ১৯ জুলাই একদিনেই ৭৫ লাখ মানুষকে টিকা দেয়া হবে।

দেশে করোনা টিকার প্রথম ডোজ ১৩ কোটি আর দ্বিতীয় ডোজ পেয়েছে প্রায় ১২ কোটি মানুষ। এখন চার মাস পরেই দেয়া হচ্ছে বুস্টার ডোজ।

এ পর্যন্ত বুস্টার নিয়েছে মাত্র ৩ কোটি। শুরুতে ব্যাপক আগ্রহ থাকলেও এখন তাতে ভাটা পড়েছে। সরকারের হাতে টিকা মজুদ থাকলেও আগ্রহীদের সংখ্যা কম।

টিকায় গতি বাড়াতে আবারো বিশেষ কর্মসূচি হাতে নিয়েছে সরকার। মঙ্গলবার একদিনে ৭৫ লাখ টিকা দেয়ার লক্ষ্য। সরকারি মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল, বিশেষায়িত হাসপাতাল, জেলা সদর হাসপাতাল, উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও ওয়ার্ড পর্যায়েও দেয়া হবে টিকা। সারা দেশে কেন্দ্র থাকবে ১৬ হাজার।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী জানান, ৫ থেকে ১১ বছর শিশুরা টিকা পাবে আগামী মাসে।

সোমবার স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, দেশে করোনা সংক্রমণের ঊর্ধ্বগতি হচ্ছে। তাই টিকাদানের এই ক্যাম্পেইনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। সরকারি মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল, বিশেষায়িত হাসপাতাল, জেলা সদর হাসপাতাল, উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও ওয়ার্ড পর্যায়েও দেয়া হবে টিকা।

তিনি বলেন, আমরা ওই ক্যাম্পেইনে একটা লক্ষ্যমাত্রা ঠিক করেছি প্রায় ৭৫ লাখ ডোজ। সবাই মিলে কাজ করলে এটা অর্জন করা সম্ভব। এটা অর্জন করলে দেশ সুরক্ষিত থাকবে, সংক্রমণ কমবে। মানুষের মৃত্যুঝুঁকি কমবে।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী আরো জানান, ৫ থেকে ১১ বছর শিশুদেরকেও টিকা দেয়া হবে আগামী মাসে। দেশের মোট জনসংখ্যার ৭৬.০৫ শতাংশকে ১ম ডোজ, ৭০.৩ শতাংশকে ২য় এবং ১৭.৯ ভাগকে বুস্টার ডোজ দেয়া হয়েছে।

দেশে দেয়া হচ্ছে পাঁচ ধরনের টিকা। সব মিলিয়ে এখন সরকারের হাতে মজুদ আছে ২ কোটি ৭৮ লাখ ডোজ।

Tag :
About Author Information

জনপ্রিয় সংবাদ

একুশে ফেব্রুয়ারির প্রথম প্রহরে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা

করোনা টিকার বুস্টার ডোজ নিতে আগ্রহ কমেছে মানুষের।

Update Time : ১১:১০:৪৮ অপরাহ্ন, সোমবার, ১৮ জুলাই ২০২২

করোনা টিকার বুস্টার ডোজ নিতে আগ্রহ কমেছে মানুষের। টিকার দ্বিতীয় ডোজ নেয়ার হার ৭০ হলেও বুস্টারের ক্ষেত্রে তা মাত্র ১৮ ভাগ। স্বাস্থ্য বিভাগ বলছে, টিকায় গতি বাড়াতে ১৯ জুলাই একদিনেই ৭৫ লাখ মানুষকে টিকা দেয়া হবে।

দেশে করোনা টিকার প্রথম ডোজ ১৩ কোটি আর দ্বিতীয় ডোজ পেয়েছে প্রায় ১২ কোটি মানুষ। এখন চার মাস পরেই দেয়া হচ্ছে বুস্টার ডোজ।

এ পর্যন্ত বুস্টার নিয়েছে মাত্র ৩ কোটি। শুরুতে ব্যাপক আগ্রহ থাকলেও এখন তাতে ভাটা পড়েছে। সরকারের হাতে টিকা মজুদ থাকলেও আগ্রহীদের সংখ্যা কম।

টিকায় গতি বাড়াতে আবারো বিশেষ কর্মসূচি হাতে নিয়েছে সরকার। মঙ্গলবার একদিনে ৭৫ লাখ টিকা দেয়ার লক্ষ্য। সরকারি মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল, বিশেষায়িত হাসপাতাল, জেলা সদর হাসপাতাল, উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও ওয়ার্ড পর্যায়েও দেয়া হবে টিকা। সারা দেশে কেন্দ্র থাকবে ১৬ হাজার।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী জানান, ৫ থেকে ১১ বছর শিশুরা টিকা পাবে আগামী মাসে।

সোমবার স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, দেশে করোনা সংক্রমণের ঊর্ধ্বগতি হচ্ছে। তাই টিকাদানের এই ক্যাম্পেইনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। সরকারি মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল, বিশেষায়িত হাসপাতাল, জেলা সদর হাসপাতাল, উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও ওয়ার্ড পর্যায়েও দেয়া হবে টিকা।

তিনি বলেন, আমরা ওই ক্যাম্পেইনে একটা লক্ষ্যমাত্রা ঠিক করেছি প্রায় ৭৫ লাখ ডোজ। সবাই মিলে কাজ করলে এটা অর্জন করা সম্ভব। এটা অর্জন করলে দেশ সুরক্ষিত থাকবে, সংক্রমণ কমবে। মানুষের মৃত্যুঝুঁকি কমবে।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী আরো জানান, ৫ থেকে ১১ বছর শিশুদেরকেও টিকা দেয়া হবে আগামী মাসে। দেশের মোট জনসংখ্যার ৭৬.০৫ শতাংশকে ১ম ডোজ, ৭০.৩ শতাংশকে ২য় এবং ১৭.৯ ভাগকে বুস্টার ডোজ দেয়া হয়েছে।

দেশে দেয়া হচ্ছে পাঁচ ধরনের টিকা। সব মিলিয়ে এখন সরকারের হাতে মজুদ আছে ২ কোটি ৭৮ লাখ ডোজ।