০২:৩৭ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ০৪ মার্চ ২০২৪, ২০ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

ওসির বিপুল সম্পদ বিষয়ে হাইকোর্ট : এভাবে চলতে দেয়া যায় না

  • Reporter Name
  • Update Time : ০৬:১৫:০৪ অপরাহ্ন, বুধবার, ১০ অগাস্ট ২০২২
  • 19

রাজধানীর রমনা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মনিরুল ইসলামের আটতলা বাড়িসহ বিপুল সম্পদ ও বীর মুক্তিযোদ্ধার বাড়ি দখলের অভিযোগের বিষয়ে হাইকোর্ট বলেছেন, এভাবে দুর্নীতি-অনিয়ম চলতে পারে না।
বিচারপতি মো. নজরুল ইসলাম তালুকদার ও বিচারপতি খিজির হায়াত সমন্বয়ে গঠিত একটি হাইকোর্ট ডিভিশন বেঞ্চ আজ এ মন্তব্য করেন।
আদালত এ বিষয়ে আরো বলেন, এভাবে চলতে দেয়া যায় না। সবকিছুর জবাবদিহিতা থাকতে হবে।
ওই ওসির সম্পদ তদন্তের নির্দেশনা চেয়ে হাইকোর্টে রিট করেন সুপ্রিমকোর্টের আইনজীবী সৈয়দ সায়েদুল হক সুমন। বিষয়টি আজ আদালতে উপস্থাপন করলে আইনজীবী ব্যারিস্টার সুমনকে উদ্দেশ্য করে বলেন, আপনার মনোভাবের সঙ্গে আমরা শতভাগ একমত। তবে ওসি মনিরুল ইসলামের আটতলা বাড়িসহ বিপুল সম্পদ ও বীর মুক্তিযোদ্ধার বাড়ি দখলের অভিযোগের বিষয়ে দুদকে একটি আবেদন করুন। দুদক যদি ব্যবস্থা না নেয় তাহলে আমরা দেখব। এরপর আদালত রিট শুনানি আগামী ২১ আগস্ট পর্যন্ত মুলতবি করেন।
আদালতে রিটের পক্ষে ব্যারিস্টার সৈয়দ সায়েদুল হক সুমন নিজেই শুনানি করেন । দুদকের পক্ষে ছিলেন সিনিয়র এডভোকেট খুরশীদ আলম খান।
ওসি মনিরুল ইসলামের আটতলা বাড়িসহ বিপুল সম্পদ ও মুক্তিযোদ্ধার বাড়ি দখলের অভিযোগ অনুসন্ধানের নির্দেশনা চেয়ে হাইকোর্টে আজ রিটটি করা হয়। দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) চেয়ারম্যানসহ রিটে সংশ্লিষ্টদের বিবাদী (রেসপনডেন্ট) করা হয়েছে।
ওসি মনিরুল ইসলামের বিপুল সম্পদ ও মুক্তিযোদ্ধার বাড়ি দখলের বিষয়ে  একটি জাতীয় দৈনিক পত্রিকায় গত ৪ আগষ্ট প্রকাশিত প্রতিবেদন গত সোমবার হাইকোর্টের এ বেঞ্চের নজরে আনেন আইনজীবী সুমন। আদালত বিষয়টি পিটিশন আকারে দাখিল করতে বলেন। সে অনুযায়ী আজ রিটটি দায়ের করেন ব্যারিষ্টার সুমন।

Tag :
About Author Information

জনপ্রিয় সংবাদ

একুশে ফেব্রুয়ারির প্রথম প্রহরে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা

ওসির বিপুল সম্পদ বিষয়ে হাইকোর্ট : এভাবে চলতে দেয়া যায় না

Update Time : ০৬:১৫:০৪ অপরাহ্ন, বুধবার, ১০ অগাস্ট ২০২২

রাজধানীর রমনা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মনিরুল ইসলামের আটতলা বাড়িসহ বিপুল সম্পদ ও বীর মুক্তিযোদ্ধার বাড়ি দখলের অভিযোগের বিষয়ে হাইকোর্ট বলেছেন, এভাবে দুর্নীতি-অনিয়ম চলতে পারে না।
বিচারপতি মো. নজরুল ইসলাম তালুকদার ও বিচারপতি খিজির হায়াত সমন্বয়ে গঠিত একটি হাইকোর্ট ডিভিশন বেঞ্চ আজ এ মন্তব্য করেন।
আদালত এ বিষয়ে আরো বলেন, এভাবে চলতে দেয়া যায় না। সবকিছুর জবাবদিহিতা থাকতে হবে।
ওই ওসির সম্পদ তদন্তের নির্দেশনা চেয়ে হাইকোর্টে রিট করেন সুপ্রিমকোর্টের আইনজীবী সৈয়দ সায়েদুল হক সুমন। বিষয়টি আজ আদালতে উপস্থাপন করলে আইনজীবী ব্যারিস্টার সুমনকে উদ্দেশ্য করে বলেন, আপনার মনোভাবের সঙ্গে আমরা শতভাগ একমত। তবে ওসি মনিরুল ইসলামের আটতলা বাড়িসহ বিপুল সম্পদ ও বীর মুক্তিযোদ্ধার বাড়ি দখলের অভিযোগের বিষয়ে দুদকে একটি আবেদন করুন। দুদক যদি ব্যবস্থা না নেয় তাহলে আমরা দেখব। এরপর আদালত রিট শুনানি আগামী ২১ আগস্ট পর্যন্ত মুলতবি করেন।
আদালতে রিটের পক্ষে ব্যারিস্টার সৈয়দ সায়েদুল হক সুমন নিজেই শুনানি করেন । দুদকের পক্ষে ছিলেন সিনিয়র এডভোকেট খুরশীদ আলম খান।
ওসি মনিরুল ইসলামের আটতলা বাড়িসহ বিপুল সম্পদ ও মুক্তিযোদ্ধার বাড়ি দখলের অভিযোগ অনুসন্ধানের নির্দেশনা চেয়ে হাইকোর্টে আজ রিটটি করা হয়। দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) চেয়ারম্যানসহ রিটে সংশ্লিষ্টদের বিবাদী (রেসপনডেন্ট) করা হয়েছে।
ওসি মনিরুল ইসলামের বিপুল সম্পদ ও মুক্তিযোদ্ধার বাড়ি দখলের বিষয়ে  একটি জাতীয় দৈনিক পত্রিকায় গত ৪ আগষ্ট প্রকাশিত প্রতিবেদন গত সোমবার হাইকোর্টের এ বেঞ্চের নজরে আনেন আইনজীবী সুমন। আদালত বিষয়টি পিটিশন আকারে দাখিল করতে বলেন। সে অনুযায়ী আজ রিটটি দায়ের করেন ব্যারিষ্টার সুমন।