১১:৩৩ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ০২ মার্চ ২০২৪, ১৯ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

এখনই স্থায়ী যুদ্ধবিরতি চাইছে না যুক্তরাষ্ট্র।

গাজা উপত্যকায় অস্থায়ী মানবিক বিরতির মেয়াদ আরও বৃদ্ধির পক্ষে থাকলেও এখনই সেখানে স্থায়ী যুদ্ধবিরতি চাইছে না যুক্তরাষ্ট্র।

বৃহস্পতিবার (১ ডিসেম্বর) মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের জাতীয় নিরাপত্তাবিষয়ক উপদেষ্টা জন কিরবি এক ব্রিফিংয়ে ফিলিস্তিনের গাজা উপত্যকা নিয়ন্ত্রণকারী গোষ্ঠী হামাস এবং ইসরায়েলের যুদ্ধ নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের অবস্থান স্পষ্ট করেছেন।

ব্রিফিংয়ে জন কিরবি বলেন, আমরা চাই, গাজায় যে মানবিক বিরতি চলছে—তা আরও বৃদ্ধি পাক। তবে এখনই আমরা (গাজায়) কোনো স্থায়ী যুদ্ধবিরতি চাইছি না।

কিরবির এই ব্রিফিংয়ের ২৪ ঘণ্টার মধ্যেই গাজা উপত্যকায় ফের অভিযান শুরু করেছে ইসরায়েলি স্থল ও বিমানবাহিনী। ইসরায়েলের প্রতিরক্ষা বাহিনী (আইডিএফ) এক বিবৃতিতে বলেছে, হামাস যুদ্ধবিরতির শর্ত ভাঙার কারণে এই অভিযান শুরু করেছে ইসরায়েলি বাহিনী।

গত ২৫ নভেম্বর অস্থায়ী যুদ্ধবিরতি ঘোষণা করে ইসরায়েলের প্রতিরক্ষা বাহিনী আইডিএফ এবং হামাস। গত নভেম্বরের মাঝামাঝি যুদ্ধের অন্যতম মধ্যস্থতাকারী দেশ কাতারের মাধ্যমে ইসরায়েলের যুদ্ধকালীন মন্ত্রিসভা বরাবর একটি প্রস্তাব পাঠিয়েছিল হামাসের হাইকমান্ড।

সেই প্রস্তাবে গোষ্ঠীটির পক্ষ থেকে বলা হয়েছিল, ইসরায়েল যদি গাজা উপত্যকায় চার দিনের যুদ্ধবিরতি ঘোষণা করে, রাফাহ ক্রসিংয়ে অপেক্ষারত ত্রাণ, জ্বালানি ও মানবিক সহায়তা পণ্যবাহী ট্রাকগুলোকে প্রবেশ করতে দেয় এবং ইসরায়েলি কারাগারগুলো থেকে অন্তত ১৫০ জন বন্দিকে মুক্তি দেয়, তাহলে নিজেদের হাতে থাকা জিম্মিদের মধ্যে থেকে ৫০ জনকে ছেড়ে দেবে হামাস।

সেই প্রস্তাব মেনে নিয়ে ২৫ নভেম্বর চার দিনের যুদ্ধবিরতি ঘোষণা করে ইসরায়েল। পরে যুক্তরাষ্ট্র, কাতার, মিসর, ইউরোপ ও অন্যান্য মধ্যস্থতাকারীদের তৎপরতায় যুদ্ধবিরতির মেয়াদ আরও তিন দিন বাড়ানো হয়।

ইসরায়েলের প্রধানমন্ত্রী বেঞ্জামিন নেতানিয়াহু জানিয়েছিলেন, হামাস যদি প্রতিদিন ১০ জন জিম্মিকে মুক্তি দেয় তাহলে যুদ্ধবিরতির মেয়াদ এক দিন করে বাড়ানো হবে।

অস্থায়ী যুদ্ধবিরতি চুক্তির একটি গুরুত্বপূর্ণ শর্ত ছিল- বিরতির এক একটি দিনে যেসব জিম্মিকে মুক্তি দেওয়া হবে- তাদের নামের তালিকা স্থানীয় সময় সকাল ৭টার (বাংলাদেশ সময় বেলা ১১টা) আগে ইসরায়েলের প্রতিরক্ষা বাহিনীর কাছে হস্তান্তর করবে হামাস।

গত বৃহস্পতিবার পর্যন্ত হামাস এই শর্ত মানলেও শুক্রবার নির্দিষ্ট সময় পেরিয়ে যাওয়ার পরও গোষ্ঠীটি সেই তালিকা সরবরাহ করেনি বলে জানিয়েছে আইডিএফ।

তাদের দাবি, যুদ্ধবিরতির মেয়াদ শেষ হওয়ার এক ঘণ্টা আগে গাজা থেকে একটি রকেট ছোড়া হয়।

এ ঘটনার পর এক তাৎক্ষণিক বিবৃতিতে গাজায় ফের অভিযান শুরুর ঘোষণা দেয় আইডিএফ। সেই অভিযানে এখন পর্যন্ত সেখানে নিহত হয়েছেন ৩২ জন।

সূত্র : আনাদোলু এজেন্সি

Tag :
About Author Information

জনপ্রিয় সংবাদ

একুশে ফেব্রুয়ারির প্রথম প্রহরে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা

এখনই স্থায়ী যুদ্ধবিরতি চাইছে না যুক্তরাষ্ট্র।

Update Time : ০৪:০৬:৫৬ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ২ ডিসেম্বর ২০২৩

গাজা উপত্যকায় অস্থায়ী মানবিক বিরতির মেয়াদ আরও বৃদ্ধির পক্ষে থাকলেও এখনই সেখানে স্থায়ী যুদ্ধবিরতি চাইছে না যুক্তরাষ্ট্র।

বৃহস্পতিবার (১ ডিসেম্বর) মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের জাতীয় নিরাপত্তাবিষয়ক উপদেষ্টা জন কিরবি এক ব্রিফিংয়ে ফিলিস্তিনের গাজা উপত্যকা নিয়ন্ত্রণকারী গোষ্ঠী হামাস এবং ইসরায়েলের যুদ্ধ নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের অবস্থান স্পষ্ট করেছেন।

ব্রিফিংয়ে জন কিরবি বলেন, আমরা চাই, গাজায় যে মানবিক বিরতি চলছে—তা আরও বৃদ্ধি পাক। তবে এখনই আমরা (গাজায়) কোনো স্থায়ী যুদ্ধবিরতি চাইছি না।

কিরবির এই ব্রিফিংয়ের ২৪ ঘণ্টার মধ্যেই গাজা উপত্যকায় ফের অভিযান শুরু করেছে ইসরায়েলি স্থল ও বিমানবাহিনী। ইসরায়েলের প্রতিরক্ষা বাহিনী (আইডিএফ) এক বিবৃতিতে বলেছে, হামাস যুদ্ধবিরতির শর্ত ভাঙার কারণে এই অভিযান শুরু করেছে ইসরায়েলি বাহিনী।

গত ২৫ নভেম্বর অস্থায়ী যুদ্ধবিরতি ঘোষণা করে ইসরায়েলের প্রতিরক্ষা বাহিনী আইডিএফ এবং হামাস। গত নভেম্বরের মাঝামাঝি যুদ্ধের অন্যতম মধ্যস্থতাকারী দেশ কাতারের মাধ্যমে ইসরায়েলের যুদ্ধকালীন মন্ত্রিসভা বরাবর একটি প্রস্তাব পাঠিয়েছিল হামাসের হাইকমান্ড।

সেই প্রস্তাবে গোষ্ঠীটির পক্ষ থেকে বলা হয়েছিল, ইসরায়েল যদি গাজা উপত্যকায় চার দিনের যুদ্ধবিরতি ঘোষণা করে, রাফাহ ক্রসিংয়ে অপেক্ষারত ত্রাণ, জ্বালানি ও মানবিক সহায়তা পণ্যবাহী ট্রাকগুলোকে প্রবেশ করতে দেয় এবং ইসরায়েলি কারাগারগুলো থেকে অন্তত ১৫০ জন বন্দিকে মুক্তি দেয়, তাহলে নিজেদের হাতে থাকা জিম্মিদের মধ্যে থেকে ৫০ জনকে ছেড়ে দেবে হামাস।

সেই প্রস্তাব মেনে নিয়ে ২৫ নভেম্বর চার দিনের যুদ্ধবিরতি ঘোষণা করে ইসরায়েল। পরে যুক্তরাষ্ট্র, কাতার, মিসর, ইউরোপ ও অন্যান্য মধ্যস্থতাকারীদের তৎপরতায় যুদ্ধবিরতির মেয়াদ আরও তিন দিন বাড়ানো হয়।

ইসরায়েলের প্রধানমন্ত্রী বেঞ্জামিন নেতানিয়াহু জানিয়েছিলেন, হামাস যদি প্রতিদিন ১০ জন জিম্মিকে মুক্তি দেয় তাহলে যুদ্ধবিরতির মেয়াদ এক দিন করে বাড়ানো হবে।

অস্থায়ী যুদ্ধবিরতি চুক্তির একটি গুরুত্বপূর্ণ শর্ত ছিল- বিরতির এক একটি দিনে যেসব জিম্মিকে মুক্তি দেওয়া হবে- তাদের নামের তালিকা স্থানীয় সময় সকাল ৭টার (বাংলাদেশ সময় বেলা ১১টা) আগে ইসরায়েলের প্রতিরক্ষা বাহিনীর কাছে হস্তান্তর করবে হামাস।

গত বৃহস্পতিবার পর্যন্ত হামাস এই শর্ত মানলেও শুক্রবার নির্দিষ্ট সময় পেরিয়ে যাওয়ার পরও গোষ্ঠীটি সেই তালিকা সরবরাহ করেনি বলে জানিয়েছে আইডিএফ।

তাদের দাবি, যুদ্ধবিরতির মেয়াদ শেষ হওয়ার এক ঘণ্টা আগে গাজা থেকে একটি রকেট ছোড়া হয়।

এ ঘটনার পর এক তাৎক্ষণিক বিবৃতিতে গাজায় ফের অভিযান শুরুর ঘোষণা দেয় আইডিএফ। সেই অভিযানে এখন পর্যন্ত সেখানে নিহত হয়েছেন ৩২ জন।

সূত্র : আনাদোলু এজেন্সি