একের পর মানুষ হত্যায় মেতে উঠেছে সভ্যতার আবরণ গায়ে চাপানো শ্বেতাঙ্গের দল।

নিজস্ব প্রতিবেদকনিজস্ব প্রতিবেদক
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  09:00 PM, 05 June 2022

কোনোভাবেই থামছে না মার্কিনীদের বন্দুকবাজী। একের পর মানুষ হত্যায় মেতে উঠেছে সভ্যতার আবরণ গায়ে চাপানো শ্বেতাঙ্গের দল। এবার দেশটির উত্তরপূর্বাঞ্চীলয় অঙ্গরাজ্য পেনসিলভানিয়ার বৃহত্তম শহর ফিলাডেলফিয়ায় বন্দুক হামলা হয়েছে।

সিএনএন-এর প্রতিবেদন অনুযায়ী, শনিবার রাতে নগরের সাউথ স্ট্রিট এলাকায় হামলা চালিয়েছে একাধিক বন্দুকধারী। এতে ঘটনাস্থলেই নিহত হয়েছেন দুই জন পুরুষ ও একজন নারী, আহত হন আরও ২৪ জন।

ফিলাডেলফিয়া পুলিশের বরাত দিয়ে এক প্রতিবেদনে বার্তা সংস্থা এএফপি জানিয়েছে, সাউথ স্ট্রিট এলাকাটি শহরের জনপ্রিয় বিনোদন পার্কগুলোর একটি। ফিলাডেলফিয়া পুলিশের পরিদর্শক ও মুখপাত্র ডি. এফ. পেস এএফপিকে বলেন, ‘গ্রীষ্মকালে উইকএন্ডের দিনগুলোতে সাউথ স্ট্রিট এলাকায় জনসমাগম বেশি হয়। মতো শনিবার রাতেও সেখানে শত শত মানুষ উপস্থিত ছিলেন। এ সময় হঠাৎ কয়েকজন বন্দুকধারী সেখানে উপস্থিত হয়ে এলোপাতাড়ি গুলি চালাতে শুরু করে।’

তিনি আরও জানান, সেখানে উপস্থিত পুলিশ কর্মকর্তারা তাৎক্ষণিকভাবে তৎপর হয় এবং তারাও হামলাকারীদের লক্ষ্য করে গুলি ছুড়তে থাকে। পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে দুর্বৃত্তরা সেখান থেকে পালিয়ে যায়।

ঘটনাস্থলে উপস্থিত প্রত্যক্ষদর্শী জো স্মিথ (২৩) এএফপিকে বলেন, ‘যখন প্রথম গুলির শব্দ শুনলাম, আমার ভয় হচ্ছিল যে এটি আর থামবে না। চারদিক থেকে শুধু আতঙ্কিত আর্তনাদ শোনা যাচ্ছিল। এখনও আমার কানে বাজছে সেসব।’পুলিশ মুখপাত্র ডি. এফ. পেস জানিয়েছেন, হামলায় সংশ্লিষ্টতার অভিযোগে এখন পর্যন্ত কাউকে গ্রেপ্তার করতে পারেনি পুলিশ। ঘটনাস্থল থেকে দুটি সেমি অটোমেটিক পিস্তল ও একটি খালি ম্যাগজিন উদ্ধার করা হয়েছে। পুলিশ ইতোমধ্যে হামলার তদন্ত শুরু করেছে। ঘটনাস্থলের ফুটেজ সংগ্রহের চেষ্টা চলছে।

যুক্তরাষ্ট্রে আগ্নেয়াস্ত্র অনেক সহজলভ্য হওয়ায় বন্দুক হামলার ঘটনাও বেশি ঘটে। গত সপ্তাহেই যুক্তরাষ্ট্রের টেক্সাস অঙ্গরাজ্যের একটি স্কুলে প্রাণঘাতী বন্দুক হামলায় ১৯ শিশুসহ অন্তত ২১ জন নিহত হয়েছে। এ ছাড়া নিউ ইয়র্কের বাফেলো, ওকলাহোমার তুলসা শহর ও ক্যালিফোর্নিয়া অঙ্গরাজ্যেও গত কয়েকদিনে হামলা হয়েছে।