০৪:২০ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ০১ মার্চ ২০২৪, ১৭ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

ইরানের তৈরি পাইলট বিহীন ড্রোন উড়‌তে পার‌বে ৪ হাজার মাইল।

  • Reporter Name
  • Update Time : ০২:১৬:২৭ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৮ জুন ২০২১
  • 10

ইরানের তৈরি ড্রোন সাত হাজার কিলোমিটার (চার হাজার মাইলের বেশি) উড়তে সক্ষম। রোববার দেশটির বিপ্লবী গার্ড বাহিনীর কমান্ডার এ তথ্য জানিয়েছেন। খবর এএফপি’র।

রাষ্ট্রীয় টেলিভিশন সম্প্রচারিত এক ভাষণে জেনারেল হোসাইন সালামি বলেন, ‘আমাদের তৈরি এমন অনেক ড্রোন রয়েছে যা কোন পাইলট ছাড়াই সাত হাজার কিলোমিটার উড়তে পারে এবং এসব ড্রোন একই স্থানে ফিরে আসতে বা যেকোন জায়গায় অবতরণ করতে পারে।’

তিনি এ বিষয়ে বিস্তারিত উল্লেখ করেননি, তবে ধারণা করা হচ্ছে এ বছরের গোড়ার দিকে উন্মোচন করা ইরানের ‘গাজা’ যুদ্ধ ড্রোনের দুই হাজার কিলোমিটারের তুলনায় নতুন এ ড্রোনের রেঞ্জ হবে সাড়ে তিন হাজার কিলোমিটার।

নতুন এ ড্রোন তৈরির আগে ‘গাজা’ ড্রোন ছিল ইরানের সবচেয়ে দীর্ঘ রেঞ্জের ড্রোন।

ইরানের বিমানবাহিনী অধিকাংশ ক্ষেত্রে ১৯৭৯ সালে ক্ষমতাচ্যূত শাহ’র  করা আইনের আওতায় ক্রয় করা যুক্তরাষ্ট্রের পুরোনো যুদ্ধবিমানের ওপর নির্ভরশীল। আমেরিকার নিষেধাজ্ঞার কারণে এগুলোর রক্ষণাবেক্ষণও কঠিন হয়ে পড়েছে।

Tag :
About Author Information

জনপ্রিয় সংবাদ

একুশে ফেব্রুয়ারির প্রথম প্রহরে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা

ইরানের তৈরি পাইলট বিহীন ড্রোন উড়‌তে পার‌বে ৪ হাজার মাইল।

Update Time : ০২:১৬:২৭ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৮ জুন ২০২১

ইরানের তৈরি ড্রোন সাত হাজার কিলোমিটার (চার হাজার মাইলের বেশি) উড়তে সক্ষম। রোববার দেশটির বিপ্লবী গার্ড বাহিনীর কমান্ডার এ তথ্য জানিয়েছেন। খবর এএফপি’র।

রাষ্ট্রীয় টেলিভিশন সম্প্রচারিত এক ভাষণে জেনারেল হোসাইন সালামি বলেন, ‘আমাদের তৈরি এমন অনেক ড্রোন রয়েছে যা কোন পাইলট ছাড়াই সাত হাজার কিলোমিটার উড়তে পারে এবং এসব ড্রোন একই স্থানে ফিরে আসতে বা যেকোন জায়গায় অবতরণ করতে পারে।’

তিনি এ বিষয়ে বিস্তারিত উল্লেখ করেননি, তবে ধারণা করা হচ্ছে এ বছরের গোড়ার দিকে উন্মোচন করা ইরানের ‘গাজা’ যুদ্ধ ড্রোনের দুই হাজার কিলোমিটারের তুলনায় নতুন এ ড্রোনের রেঞ্জ হবে সাড়ে তিন হাজার কিলোমিটার।

নতুন এ ড্রোন তৈরির আগে ‘গাজা’ ড্রোন ছিল ইরানের সবচেয়ে দীর্ঘ রেঞ্জের ড্রোন।

ইরানের বিমানবাহিনী অধিকাংশ ক্ষেত্রে ১৯৭৯ সালে ক্ষমতাচ্যূত শাহ’র  করা আইনের আওতায় ক্রয় করা যুক্তরাষ্ট্রের পুরোনো যুদ্ধবিমানের ওপর নির্ভরশীল। আমেরিকার নিষেধাজ্ঞার কারণে এগুলোর রক্ষণাবেক্ষণও কঠিন হয়ে পড়েছে।