ইমরান খানের ১৫ দিনের জামিনের মেয়াদ শেষ হলেই তাকে গ্রেপ্তার করা হবে বলে জানিয়েছেন রানা সানাউল্লাহ।

নিজস্ব প্রতিবেদকনিজস্ব প্রতিবেদক
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  08:41 PM, 05 June 2022

পাকিস্তানের সাবেক প্রধানমন্ত্রী ও পিটিআই প্রধান ইমরান খানের ১৫ দিনের জামিনের মেয়াদ শেষ হলেই তাকে গ্রেপ্তার করা হবে বলে জানিয়েছেন শাহবাজ সরকারের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রানা সানাউল্লাহ। তিনি বলেছেন, ‘জামিন শেষ হলেই ইমরানের জন্য নিয়োজিত নিরাপত্তারক্ষীরাই তাকে ধরে নিয়ে যাবে।’

পাকিস্তানি গণমাধ্যম জিও টিভির প্রতিবেদন অনুযায়ী, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রানা সানাউল্লাহ কোনো রাখঢাক না রেখে রোববার প্রকাশ্যে এমন কথা বলেছেন। জামিনের মেয়াদ শেষ হওয়ার পরই তাকে গ্রেপ্তার করা হবে। এ জন্যেই ইমরানের নিরাপত্তা বাড়ানো হয়েছে। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী জানিয়েছেন, ইমরান খানের বাসভবন বানিয়া গালায় নিরাপত্তা বাড়ানো হয়েছে। শনিবার দিবাগত রাতে ইসলামাবাদ পুলিশ বলেছে, পেশোয়ার থেকে ইসলামাবাদ ফেরার আশা করছেন ইমরান খান। তিনি ইসলামাবাদের বানি গালার বাসায় পৌঁছাবেন বলে আশা করা হচ্ছে।

এ জন্য আগে থেকেই এর চারপাশে নিরাপত্তা শক্তিশালী করা হয়েছে এবং পুলিশ রয়েছে উচ্চ সতর্ক অবস্থায়। পুলিশ বলেছে, ইসলামাবাদে এ জন্য জারি করা হয়েছে ১৪৪ ধারা। ডিস্ট্রিক্ট ম্যাজিস্ট্রেটের নির্দেশে কোনো রকম সমাবেশের অনুমোদন নেই।

পুলিশের এক মুখপাত্র বলেছেন, আইন অনুযায়ী পূর্ণাঙ্গ নিরাপত্তা দেয়া হবে ইমরান খানকে। একই সঙ্গে ইমরান খানের কাছ থেকে সহযোগিতামূলক আচরণ প্রত্যাশা করে পুলিশ। ইমরান খান ইসলামাবাদের বানি গালায় ফিরবেন এ খবরে তাকে স্বাগত জানিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রানা সানাউল্লাহ।তিনি বলেছেন, আইন অনুযায়ী তাকে নিরাপত্তা দেয়া হচ্ছে। দাঙ্গা, রাষ্ট্রদ্রোহিতা, বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি, সশস্ত্র হামলার অভিযোগে সারাদেশে কমপক্ষে দুই ডজন মামলায় ইমরান খানকে আসামি করা হয়েছে।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আরও বলেন, আইন অনুযায়ী ১৫ দিনের জামিন যখন শেষ হয়ে যাবে তখন ইমরান খানকে নিরাপত্তা দানকারীরাই তাকে গ্রেপ্তার করবেন। ইমরান খানের সঙ্গে কোনো রকম আলোচনার সম্ভাবনা উড়িয়ে দেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রানা সানাউল্লাহ।

তিনি প্রশ্ন রাখেন- যে ব্যক্তি দেশজুড়ে বিশৃঙ্খলা ছড়িয়ে দেয়, নৈতিক ও গণতান্ত্রিক মূল্যবোধের কোনো তোয়াক্কা করে না, বিরোধীদেরকে বিশ্বাসঘাতক ও ইয়াজিদি হিসেবে অভিহিত করে- সে কি করে একটি গণতান্ত্রিক সমাজে একটি রাজনৈতিক দলের প্রধান হয়?

উল্লেখ্য, পাকিস্তানে ইমরান খানের বিরুদ্ধে ১৪টি মামলা করা হয়েছে। এসব মামলায় তাকে পেশোয়ার হাইকোর্ট গত বৃহস্পতিবার ১৫ দিনের জামিন দিয়েছেন।