০২:৫২ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৩০ মে ২০২৪, ১৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ইউরোপে গ্যাস সরবরাহ আপাতত স্থগিত করেছে রাশিয়া।

  • Reporter Name
  • Update Time : ০৮:৪১:৫৬ অপরাহ্ন, সোমবার, ১১ জুলাই ২০২২
  • 36

নর্ড স্ট্রিম

ইউরোপে গ্যাস সরবরাহ আপাতত স্থগিত করেছে রাশিয়া। রক্ষণাবেক্ষণ কাজের জন্য নর্ড স্ট্রিম পাইপলাইন–১ দিয়ে গ্যাস সরবরাহ বন্ধ রাখা হয়েছে। নর্ড স্ট্রিম বাল্টিক সি পাইপলাইন দিয়ে রাশিয়া থেকে জার্মানিতে গ্যাস সরবরাহ হয়। এটি মূলত রাশিয়া থেকে ইউরোপে গ্যাস সরবরাহের মূল পাইপলাইন। সোমবার (১১ জুলাই) রুশ গণমাধ্যমে এ খবর জানানো হয়েছে।এদিকে গ্যাস সরবরাহ বন্ধ করার প্রতিক্রিয়ায় জার্মান চ্যান্সেলর ওলাফ শলজ বলেছেন, রাশিয়ার নতুন এই কৌশলে আমরা হতাশ। তারা পাইপলান মেরামত করার অজুহাত দিয়ে কালক্ষেপণ করেছে। পাইপলাইনে তেমন কোনো অসুবিধা আছে বলে মনে করিনা। তবে একটা পাম্পের টারবাইনে কিছুটা সমস্যা ছিল সেটি পাল্টানোর বিষয়ে আমাদের বন্ধুরাষ্ট্র কানাডা কাজ করে যাচ্ছে।

রাশিয়া থেকে প্রাকৃতিক গ্যাসের সবচেয়ে নির্ভরযোগ্য লাইনটি বন্ধ হয়ে যাওয়ায় জার্মানিতে সংকট আরও বাড়বে বলে জানিয়েছেন জার্মান জ্বালানিমন্ত্রী রব্যার্ট হাবেক। তার ভাষায়, ‘আমরা কিছুটা হলেও উদ্বিগ্ন। এটা অবিশ্বাস্য। এর ফলে সবকিছুই হতে পারে। হয় গ্যাস সরবরাহ একেবারেই বন্ধ হয়ে যেতে পারে, না হয় দু-তিন সপ্তাহ পর আবার চালু হতে পারে। তবে সংকট কাটাতে আমাদের প্রস্তুতি নেয়াটা জরুরি।’

রাশিয়া থেকে ইউরোপে গ্যাস সরবরাহের অপারেটর কোম্পানি নর্ড স্ট্রিম এজি জানায়, নিয়মিত রক্ষণাবেক্ষণকাজের অংশ হিসেবে ওই পাইপলাইনে কাজ চলছে। এ কারণে সোমবার থেকে আগামী ১০ দিন পাইপলাইনটি বন্ধ থাকবে। এ সময়ে এই পাইপলাইন দিয়ে গ্যাস সরবরাহ বন্ধ থাকবে। গ্যাস সরবরাহ বন্ধ করার আগে সব অংশীদার এ বিষয়ে একমত হয়েছে।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, গত মাসে কানাডা থেকে মেরামত করা টারবাইন সঠিক সময়ে ফেরত না আসায় এক দফা চ্যালেঞ্জের মুখে পড়ে রাশিয়ার সবচেয়ে বড় জ্বালানি প্রতিষ্ঠানটি। এ কারণে পাইপলাইনের মাধ্যমে জার্মানিতে সরবরাহ করা গ্যাসের পরিমাণ ৬০ শতাংশ কমিয়ে আনে প্রতিষ্ঠানটি। তবে জার্মানির অর্থমন্ত্রী রবার্ট হ্যাবেক এই সিদ্ধান্তকে ‘রাজনৈতিক সিদ্ধান্ত’ বলে যুক্তি দিয়েছিলেন।

সাম্প্রতিক বছরগুলোয় নর্ড স্ট্রিমের মাধ্যমে গ্যাস সরবরাহে বেশ ঘাটতি দেখা দেয়। ইউক্রেন বা পোল্যান্ডের মাধ্যমে ওই ঘাটতি পূরণ করা হয়েছিল। তবে ইউক্রেনেরে সঙ্গে যুদ্ধ পরিস্থিতির কারণে এখন আর তা সম্ভব হচ্ছে না। এ কারণে এবার ইউরোপে ব্যাপক গ্যাসের সংকট হতে পারে বলে আশঙ্কা করছেন শিল্পসংশ্লিষ্ট ব্যক্তিরা।
রাশিয়ার গ্যাস উত্তোলন ও বিতরণকারী সরকারি প্রতিষ্ঠান গাজপ্রমের একটি প্রকল্প নর্ড স্ট্রিম এজি। এই পাইপলাইনের মাধ্যমে বাল্টিক সাগরের তলদেশ দিয়ে জার্মানিতে গ্যাস সরবরাহ করে রাশিয়া।

Tag :
About Author Information

দেশের ৮৭ উপজেলায় শান্তিপূর্ণ পরিবেশে ভোট গ্রহণ চলছে

ইউরোপে গ্যাস সরবরাহ আপাতত স্থগিত করেছে রাশিয়া।

Update Time : ০৮:৪১:৫৬ অপরাহ্ন, সোমবার, ১১ জুলাই ২০২২

ইউরোপে গ্যাস সরবরাহ আপাতত স্থগিত করেছে রাশিয়া। রক্ষণাবেক্ষণ কাজের জন্য নর্ড স্ট্রিম পাইপলাইন–১ দিয়ে গ্যাস সরবরাহ বন্ধ রাখা হয়েছে। নর্ড স্ট্রিম বাল্টিক সি পাইপলাইন দিয়ে রাশিয়া থেকে জার্মানিতে গ্যাস সরবরাহ হয়। এটি মূলত রাশিয়া থেকে ইউরোপে গ্যাস সরবরাহের মূল পাইপলাইন। সোমবার (১১ জুলাই) রুশ গণমাধ্যমে এ খবর জানানো হয়েছে।এদিকে গ্যাস সরবরাহ বন্ধ করার প্রতিক্রিয়ায় জার্মান চ্যান্সেলর ওলাফ শলজ বলেছেন, রাশিয়ার নতুন এই কৌশলে আমরা হতাশ। তারা পাইপলান মেরামত করার অজুহাত দিয়ে কালক্ষেপণ করেছে। পাইপলাইনে তেমন কোনো অসুবিধা আছে বলে মনে করিনা। তবে একটা পাম্পের টারবাইনে কিছুটা সমস্যা ছিল সেটি পাল্টানোর বিষয়ে আমাদের বন্ধুরাষ্ট্র কানাডা কাজ করে যাচ্ছে।

রাশিয়া থেকে প্রাকৃতিক গ্যাসের সবচেয়ে নির্ভরযোগ্য লাইনটি বন্ধ হয়ে যাওয়ায় জার্মানিতে সংকট আরও বাড়বে বলে জানিয়েছেন জার্মান জ্বালানিমন্ত্রী রব্যার্ট হাবেক। তার ভাষায়, ‘আমরা কিছুটা হলেও উদ্বিগ্ন। এটা অবিশ্বাস্য। এর ফলে সবকিছুই হতে পারে। হয় গ্যাস সরবরাহ একেবারেই বন্ধ হয়ে যেতে পারে, না হয় দু-তিন সপ্তাহ পর আবার চালু হতে পারে। তবে সংকট কাটাতে আমাদের প্রস্তুতি নেয়াটা জরুরি।’

রাশিয়া থেকে ইউরোপে গ্যাস সরবরাহের অপারেটর কোম্পানি নর্ড স্ট্রিম এজি জানায়, নিয়মিত রক্ষণাবেক্ষণকাজের অংশ হিসেবে ওই পাইপলাইনে কাজ চলছে। এ কারণে সোমবার থেকে আগামী ১০ দিন পাইপলাইনটি বন্ধ থাকবে। এ সময়ে এই পাইপলাইন দিয়ে গ্যাস সরবরাহ বন্ধ থাকবে। গ্যাস সরবরাহ বন্ধ করার আগে সব অংশীদার এ বিষয়ে একমত হয়েছে।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, গত মাসে কানাডা থেকে মেরামত করা টারবাইন সঠিক সময়ে ফেরত না আসায় এক দফা চ্যালেঞ্জের মুখে পড়ে রাশিয়ার সবচেয়ে বড় জ্বালানি প্রতিষ্ঠানটি। এ কারণে পাইপলাইনের মাধ্যমে জার্মানিতে সরবরাহ করা গ্যাসের পরিমাণ ৬০ শতাংশ কমিয়ে আনে প্রতিষ্ঠানটি। তবে জার্মানির অর্থমন্ত্রী রবার্ট হ্যাবেক এই সিদ্ধান্তকে ‘রাজনৈতিক সিদ্ধান্ত’ বলে যুক্তি দিয়েছিলেন।

সাম্প্রতিক বছরগুলোয় নর্ড স্ট্রিমের মাধ্যমে গ্যাস সরবরাহে বেশ ঘাটতি দেখা দেয়। ইউক্রেন বা পোল্যান্ডের মাধ্যমে ওই ঘাটতি পূরণ করা হয়েছিল। তবে ইউক্রেনেরে সঙ্গে যুদ্ধ পরিস্থিতির কারণে এখন আর তা সম্ভব হচ্ছে না। এ কারণে এবার ইউরোপে ব্যাপক গ্যাসের সংকট হতে পারে বলে আশঙ্কা করছেন শিল্পসংশ্লিষ্ট ব্যক্তিরা।
রাশিয়ার গ্যাস উত্তোলন ও বিতরণকারী সরকারি প্রতিষ্ঠান গাজপ্রমের একটি প্রকল্প নর্ড স্ট্রিম এজি। এই পাইপলাইনের মাধ্যমে বাল্টিক সাগরের তলদেশ দিয়ে জার্মানিতে গ্যাস সরবরাহ করে রাশিয়া।