০৯:২৭ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৩০ মে ২০২৪, ১৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ইউক্রেন সীমান্তে রাশিয়ার লাখ সৈন্য, ন্যাটো মন্ত্রীদের জরুরি বৈঠক

  • Reporter Name
  • Update Time : ১১:১৩:৫৯ অপরাহ্ন, বুধবার, ৫ জানুয়ারী ২০২২
  • 33

ইউক্রেনের আশেপাশে রাশিয়ার সৈন্য সমাবেশ বিষয়ে জরুরি বৈঠকে বসতে যাচ্ছেন ন্যাটোর পররাষ্ট্র মন্ত্রীরা। শুক্রবার ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে বৈঠকটি অনুষ্ঠিত হবে।

সীমান্তে রাশিয়া প্রায় এক লাখ সৈন্য সমাবেশ করেছে বলে ইউক্রেনেরদাবি। এরই প্রেক্ষিতে পশ্চিমা বিশ্ব হুুঁশিয়ার দিয়ে বলেছে, ক্রেমলিন ইউক্রেনে পূর্ণ মাত্রায় হামলা চালানোর পরিকল্পনা করছে।

এদিকে উচ্চ পর্যায়ের মার্কিন ও ন্যাটো কর্মকর্তারা রোববার থেকে রাশিয়ার সাথে বৈঠক শুরু করতে যাচ্ছেন।

ক্রেমলিন জোর দিয়ে বলে আসছে, ন্যাটো যেন সাবেক সোভিয়েতভুক্ত ইউক্রেনকে সদস্য পদ না দেয়। একই সঙ্গে রাশিয়া সীমান্ত থেকে ন্যাটো সৈন্য প্রত্যাহারেরও দাবি জানানো হয়েছে।

কিন্তু পশ্চিমারা ক্রেমলিনের এ দাবি নাকচ করে বলেছে, মস্কো যদি ইউক্রেনে হামলা চালায় তবে এর পরিণাম হবে ভয়াবহ।

২০১৪ সালে রাশিয়া ইউক্রেনীয় অঞ্চল ক্রিমিয়া দখল করে নেয়। এছাড়া ইউক্রেনের পূর্বাঞ্চলে সহিংসতায় মদদ দেয়ার অভিযোগ রয়েছে রাশিয়ার বিরুদ্ধে। এ সহিংসতায় এ পর্যন্ত মারা গেছে ১৩ হাজারেরও বেশি লোক।

Tag :
About Author Information

দেশের ৮৭ উপজেলায় শান্তিপূর্ণ পরিবেশে ভোট গ্রহণ চলছে

ইউক্রেন সীমান্তে রাশিয়ার লাখ সৈন্য, ন্যাটো মন্ত্রীদের জরুরি বৈঠক

Update Time : ১১:১৩:৫৯ অপরাহ্ন, বুধবার, ৫ জানুয়ারী ২০২২

ইউক্রেনের আশেপাশে রাশিয়ার সৈন্য সমাবেশ বিষয়ে জরুরি বৈঠকে বসতে যাচ্ছেন ন্যাটোর পররাষ্ট্র মন্ত্রীরা। শুক্রবার ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে বৈঠকটি অনুষ্ঠিত হবে।

সীমান্তে রাশিয়া প্রায় এক লাখ সৈন্য সমাবেশ করেছে বলে ইউক্রেনেরদাবি। এরই প্রেক্ষিতে পশ্চিমা বিশ্ব হুুঁশিয়ার দিয়ে বলেছে, ক্রেমলিন ইউক্রেনে পূর্ণ মাত্রায় হামলা চালানোর পরিকল্পনা করছে।

এদিকে উচ্চ পর্যায়ের মার্কিন ও ন্যাটো কর্মকর্তারা রোববার থেকে রাশিয়ার সাথে বৈঠক শুরু করতে যাচ্ছেন।

ক্রেমলিন জোর দিয়ে বলে আসছে, ন্যাটো যেন সাবেক সোভিয়েতভুক্ত ইউক্রেনকে সদস্য পদ না দেয়। একই সঙ্গে রাশিয়া সীমান্ত থেকে ন্যাটো সৈন্য প্রত্যাহারেরও দাবি জানানো হয়েছে।

কিন্তু পশ্চিমারা ক্রেমলিনের এ দাবি নাকচ করে বলেছে, মস্কো যদি ইউক্রেনে হামলা চালায় তবে এর পরিণাম হবে ভয়াবহ।

২০১৪ সালে রাশিয়া ইউক্রেনীয় অঞ্চল ক্রিমিয়া দখল করে নেয়। এছাড়া ইউক্রেনের পূর্বাঞ্চলে সহিংসতায় মদদ দেয়ার অভিযোগ রয়েছে রাশিয়ার বিরুদ্ধে। এ সহিংসতায় এ পর্যন্ত মারা গেছে ১৩ হাজারেরও বেশি লোক।