অভ্যন্তরীণ নৌপথ ব্যবস্থাপনায় মার্কিন সহায়তাকে স্বাগত জানালেন নৌ প্রতিমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদকনিজস্ব প্রতিবেদক
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  12:42 AM, 03 August 2022

যুক্তরাষ্ট্রের বিনিয়োগ ও প্রযুক্তি বাংলাদেশের নৌপথ ব্যবস্থাপনার উন্নতি ঘটাবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেছেন নৌ পরিবহন প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ চৌধুরী।
সোমবার (১ আগস্ট) যুক্তরাষ্ট্রের ওয়াশিংটন ডিসিতে বাংলাদেশ দূতাবাসের বঙ্গবন্ধু মিলনায়তনে তার সম্মানে আয়োজিত এক সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে প্রতিমন্ত্রী এ কথা বলেন। আজ রাতে ঢাকায় এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে একথা জানানো হয়েছে।
মার্কিন বাণিজ্য ও উন্নয়ন সংস্থার (ইউএসটিডিএ) আমন্ত্রণে যুক্তরাষ্ট্রে বাংলাদেশ ওয়াটারওয়েজ ম্যানেজমেন্ট রিভার্স ট্রেড মিশন দলের নেতৃত্ব দিচ্ছেন প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ চৌধুরী।
তিনি অভ্যন্তরীণ নৌপথ ও  নৌপরিবহন খাতে বাংলাদেশ ও যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যে সহযোগিতা আরও সম্প্রসারণের ওপর জোর দিয়ে বলেন, বাংলাদেশের মতো নদীমাতৃক দেশের জন্য এটি উপযুক্ত পরিবেশ বান্ধব এবং কম ব্যয়বহুল বিকল্প।
তিনি আশা ব্যক্ত করেন যে, বাংলাদেশ ওয়াটারওয়েজ ম্যানেজমেন্ট রিভার্স ট্রেড মিশন প্রতিনিধিদলের যুক্তরাষ্ট্র সফর দুই বন্ধুপ্রতীম দেশের মধ্যে দীর্ঘ ও টেকসই সহযোগিতার নতুন পথ খুলে দেবে।
বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌ-পরিবহন কর্তৃপক্ষের (বিআইডব্লিউটিএ) চেয়ারম্যান কমোডোর গোলাম সাদেক তাদের যুক্তরাষ্ট্রে ১০দিনের অবস্থানকালে বিভিন্ন বন্দর ও স্থাপনা পরিদর্শন এবং সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের সঙ্গে বৈঠকের উদ্দেশ্য তুলে ধরেন। তিনি বিআইডব্লিউটিএ’র কার্যক্রম সম্পর্কেও অবহিত করেন।
যুক্তরাষ্ট্রে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত এম শহীদুল ইসলাম তার স্বাগত বক্তব্যে বাংলাদেশ প্রতিনিধিদলের এই সফর দুই দেশের মধ্যে দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক ও সহযোগিতাকে আরও জোরদার করবে বলে আশা প্রকাশ করেন।
অনুষ্ঠানে ইউএসটিডিএ’র ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারাও উপস্থিত ছিলেন। অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য রাখেন ইউএসটিডিএ’র মেহনাজ আনসারী।
এর আগে নৌ প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ চৌধুরীর নেতৃত্বে প্রতিনিধিদলের সদস্যরা মহান নেতার প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে দূতাবাসের বঙ্গবন্ধু কর্নারে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আবক্ষ মূর্তিটিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন।
অনুষ্ঠানে রাষ্ট্রদূত শহীদুল ইসলামসহ দূতাবাসের অন্যান্য কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলে